ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে শালিসে জুতাপেটা

নরসিংদী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ জুন ২০১৭, ১৬:৫৬

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে আল ভুইয়া নামে একজনকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে গ্রাম্য শালিসকারীরা। এসময় তাকে প্রকাশে জুতাপেটাও করা হয়। 

শনিবার আমিরগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খান নলবাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এলাকার মেম্বার, আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে শত শত মানুষের উপস্থিতিতে এই রায় দেন।

রায়ের পর ধর্ষণচেষ্টাকারী আলম ভূইয়াকে তার বড় ভাই রাজু ভূইয়া প্রকাশ্য জুতাপেটা করে রায় কার্যকর করেন।

দরবারের পর সাংবাদিকদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন জানান, আইনগতভাবে এই শালিস দরবারের কোন ভিত্তি না থাকলেও নির্যাতিতা, তার পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী এই রায় মেনে নিয়েছে এবং শালিস দরবারের বিচারকদের অভিনন্দন জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের নলবাটা গ্রামের বিদেশ প্রবাসীর ৯ম শ্রেণিপড়ুয়া মেয়েকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় কোচিং সেন্টার থেকে বাড়ি ফিরছিল। হঠাৎ বৃষ্টি নামলে মেয়েটি নলবাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বারান্দায় গিয়ে আশ্রয় নেয়। এসময় একই গ্রামের আলম মেয়েটিকে মুখ চেপে ধরে। এ অবস্থায় একটি অজ্ঞাতনামা লোককে আসতে দেখে আলম মেয়েটিকে ছেড়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে মেয়েটি চিৎকার করতে থাকলে আশেপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়।

নির্যাতিতা মেয়েটি সাংবাদিকদের জানান, আলম তাকে ধর্ষণ নয়, তাকে নাক-মুখ বেঁধে হত্যা করারও চেষ্টা করেছিল।

ঘটনার পর দারোগা আমিনুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের সাথে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। বলেন, এটা তেমন কিছু না, মেয়েটির মুখ চেপে ধরে ছিল, পরে আর কিছু হয়নি। মেয়েটি ছুটে চলে গেছে। এই ঘটনা জাতীয় ও স্থানীয় বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হবার পর এ নিয়ে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

(ঢাকাটাইমস/৩জুন/প্রতিনিধি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত