‘ভারত-পাকিস্তানের খেলা দেখে আমাদের লাভ কী’

দেলোয়ার হোসেন, লন্ডন ইংল্যান্ড থেকে
| আপডেট : ১৮ জুন ২০১৭, ০৯:৪৮ | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৭, ০৮:৩৪

২৫০ পাউন্ড দিয়ে ফাইনালের টিকিট কিনেছিলেন লন্ডন প্রবাসী রাব্বি। কিন্তু তিনি সিদ্ধান্ত পাল্টালেন। ভারত পাকিস্তানের ফাইনাল দেখবেন না। ২৫০ পাউন্ডের টিকিট এক ভারতীয় সমর্থকের কাছে বিক্রি করে দেন ৫০০ পাউন্ডে। লাভ হয়েছে বটে।

তিনি টিকিট কিনেছিলেন লাভ করার জন্য নয়। খেলা দেখার জন্যেই। মনে করেছিলেন অন্তত ইংল্যান্ড ফাইনালে উঠবে। আর বাংলাদেশ উঠলে তো কথাই নেই। কিন্তু তার কোনটাই হয়নি।

রাব্বির এক নম্বর পছন্দের দল বাংলাদেশ। কারণ এটা তার মাতৃভূমির দল। বাংলাদেশে চারটি খেলাই তিনি মাঠে গিয়ে দেখেছেন। সেমিফাইনালে ভারতের কাছে হারটা তিনি এখনও ভুলতে পারছেন না। জানালেন, এতটাই কষ্ট পেয়েছেন যে, কাজে মন দিতে পারছেন না এখনও।

ফাইনালে ইংল্যান্ড গেলেও কষ্টটা কম হতো। বাংলাদেশের পরে ইংল্যান্ডকেই সমর্থন দেন রাব্বি। কারণ  এই দেশের তিনি তিনি নাগরিক। বাংলাদেশ নেই, ইংল্যান্ডও নেই, অযথা ফাইনাল দেখে পাউন্ড খরচা করাই বৃথা। ভারত পাকিস্তানের ম্যাচ দেখে আমাদের কী লাভ?  তারা তাদের ম্যাচ কটা দেখে? রাব্বির প্রশ্ন।

শুধু রাব্বি নন, ভারত পাকিস্তানের ফাইনাল নিয়ে কোনো আগ্রহ নেই পুরো বাংলাদেশি কমিউনিটিতে। ফাইনাল ম্যাচ দেখার জন্য যারা টিকিট কিনেছিলেন তারা পরে বিক্রি করে দেন বাংলাদেশ বা ইংল্যান্ড ফাইনালে না ওঠায়। যতদূর জানা গেছে তাতে, গ্যালারিতে আজ ২০ জন বাংলাদেশিও খুঁজে পাওয়া দায় হবে।

যারা রেস্তোরায় চাকরি করেন না তাদের আজ ছুটির দিন। হয়তো বাসায় বসে খেলা দেখবেন কেউ কেউ। কিন্তু এ সংখ্যায়ও খুব বেশি হবে বলে মনে করেন না লন্ডনের  টাওয়ার ব্রিজ এলাকার বাসিন্দা নূরুল ইসলাম। রাব্বির মতো তিনিও বাংলাদেশের  চারটি ম্যাচ দেখেছেন মাঠে গিয়ে।

কিন্তু নানা করণে ভারত পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। প্রথম কারণ হলো এখন বাংলাদেশই ভালো ক্রিকেট খেলছে। ক্রিকেটে তাই অন্য দলকে সমর্থন দেওয়ার দরকার নেই।

ভারত পাকিস্তানকে সমর্থন দেওয়া তো রীতিমত অন্যায় মনে করেন তিনি। তার মতে, দুই দেশই আমাদের সঙ্গে শত্রুতা করেছে এবং করছে। তিনি জানান, ইংল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে যে ভারতীয়রা বসবাস করেন, তারা বাংলাদেশিদের পছন্দ করেন না। তারা নাকি বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে সেভাবে মিশেন না। বাংলাদেশ নিয়ে তারা সবসময় নেতিবাচক ধারণা পোষণ করেন। আবার সবগুলো নদীর উজানে বাঁধ দিয়ে বাংলাদেশকে মরুভূমি বানাচ্ছে ভারত। তাই এই দেশকে সমর্থন করার কোনো মানে দেখেন না তিনি।

পাকিস্তানিরা আন্তরিক।বাংলাদেশিদের সঙ্গে তাদের ভালো সম্পর্ক। কিন্তু পাকিস্তান সরকার বাংলাদেশকে ভালো চোখে দেখে না। বাংলাদেশের সঙ্গে শত্রুর মতো আচরণ করে। তাই পাকিস্তানকেও সমর্থন দেওয়া যায় না বলে মনে করেন নুরুল ইসলাম।

ভারত পাকিস্তান ফাইনাল মানে সারা বিশ্বে ক্রিকেট জ্বর। সেই দিন এখন আর নেই। ওভাল ফাইনালে এই দুই দেশের মানুষ ছাড়া সেভাবে পাখির চোখ করে থাকবে না ক্রিকেট দুনিয়া। প্রবাসী বাংলাদেশিদের তো কোনো আগ্রহই নেই এ ম্যাচ নিয়ে। পাকিস্তান ভারত বলে গলা ফাটানো বোকামি ছাড়া কিছু নয় বলে মনে করেন প্রবাসীরা।

(ঢাকাটাইমস/১৮জুন/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত