কুষ্টিয়ায় গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৪৪ | প্রকাশিত : ২১ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:৪৪

কুষ্টিয়ার মিরপুর পৌর এলাকার সুলতানপুর গ্রামে লাবনী খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের শশুরবাড়ির লোকজনের দাবি তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে গৃহবধূর স্বজনদের দাবি তাকে হত্যা করা হয়েছে। 

রবিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্বামীর বাড়ি থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে মিরপুর থানা পুলিশ।

লাবনী খাতুন মিরপুর পৌর এলাকার সুলতানপুর গ্রামের তুহিন আহম্মেদের স্ত্রী এবং একই মহল্লার সুলতান মন্ডলের মেয়ে। 

লাবনীর চাচা দানেজ মন্ডলের বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই আমার ভাতিজী লাবনীকে তার স্বামী এবং শ^শুর বাড়ির লোকজন টাকা পয়সা চাইতো। টাকা না দেওয়ায় তাকে শারীরিক নির্যাতন চালাতেন। লাবনীকে তার স্বামী ও শশুরবাড়ির লোকজনই অত্যাচার করে মেরে ফেলেছে। এখন তারা বলছে আত্মহত্যা করেছে।’

মিরপুর থানার উপপরিদর্শক লাল চাঁদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।  

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে লাবনীর স্বামী তুহিন আহম্মেদ (৩০) পলাতক রয়েছেন। 

গত ৫ এপ্রিল মিরপুর পৌরসভার সুলতানপুর একই মহল্লা থেকে দুই সন্তানের জননি সানজিদা খাতুনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনার রেশ না কাটতেই ১৫ দিনের মাথায় একই মহল্লায় এ ঘটনা ঘটলো।

ঢাকাটাইমস/২১এপ্রিল/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :