দুই স্কুলছাত্রীর শ্লীলতাহানি

মির্জাপুর মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ হারুন বরখাস্ত

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০২ জুলাই ২০১৯, ১৩:৫১

দুই স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ হারুন অর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া অভিযোগের বিষয়ে ১৫ দিনের মধ্যে তাকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. জাকির হোসেন সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শ্লীলতাহানির ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গত ২৪ জুন কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভায় অধ্যক্ষ হারুন রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ ডিসেম্বর দুপুর বারোটার দিকে মির্জাপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হারুন কলেজের একটি কক্ষে আটক করে দুই স্কুলছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করে। এই অভিযোগে ওই দুই ছাত্রীর মা মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। বিষয়টি তদন্ত করতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হারুন অর রশিদকে প্রধান করে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন ইউএনও।

কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মশিউর রহমান ও মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা মিনু পারভীন। তদন্তে সত্যতা পেলে কমিটি অধ্যক্ষ হারুনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইউএনওর কাছে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মালেক জানান, তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় অধ্যক্ষ হারুনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছিল।

মির্জাপুর মহিলা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি মো. জাকির হোসেন বলেন, তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভায় অধ্যক্ষ হারুন অর রশিদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ১৫ দিনের মধ্যে তাকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। উপযুক্ত কারণ দর্শাতে ব্যর্থ হলে তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে বলে তিনি জানান।

এদিকে ভিকটিমের মা অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা করবেন বলেও জানিয়েছেন।

ঢাকাটাইমস/২জুলাই/প্রতিনিধি/এমআর  

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :