লাখ টাকা বেতনে মোহামেডানে ক্যাসিনো চালান ১৩ নেপালি

সিরাজুম সালেকীন,ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:২১ | প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৪৬

রাজধানীতে আলোচিত ক্যাসিনো চালানোর পেছনে নেপালি নাগরিকদের নাম সামনে চলে আসছে। রবিবার বিকালে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবসহ চারটি ক্লাবে অভিযান চালিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। সবগুলোতেই মিলেছে ক্যাসিনো চালানোর সরঞ্জাম। এর মধ্যে মোহামেডান ক্লাবের ক্যাসিনো চালাতেন ১৩ নেপালি। যাদের প্রত্যেকের ডলারে বেতন দেয়া হতো। মাসে যার পরিমাণ ছয় লাখেরও বেশি।

জানা গেছে, গার্মেন্টস পণ্য আমদানির ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে আসা এসব নেপালি আসার পর ক্লাবের ক্যাসিনোতে চাকরি শুরু করে।

অভিযানের সময় মোহামেডান ক্লাব থেকে উদ্ধার করা কাগজপত্র থেকে দেখা যায়, নেপালি বংশধর সবাই বাংলাদেশে এসেছেন গার্মেন্টস প্রোডাক্টের ব্যবসার কথা বলে। পরে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ক্যাসিনো পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। তারা ক্লাবটির সঙ্গে গোপন যোগাযোগের মাধ্যমে চাকরি শুরু করেন। যার অংশ হিসেবে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অবৈধ ক্যাসিনোর প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় দায়িত্বরত ছিলেন।

জানা গেছে, এই ১৩ নেপালি নাগরিকের মাসিক ৬০০ ডলার (৫১ হাজার ৩০০ টাকা) থেকে শুরু করে ১ হাজার ডলার (৮৫ হাজার ৫০০ টাকা পর্যন্ত ছিল। প্রতিমাসে এই ১৩ নেপালি নাগরিককে ৬ লাখ ৪৯ হাজার ৮০০ টাকার বেতন দিত মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

মতিঝিল থানা পুলিশের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঢাকাটাইমসকে বলেন, ক্লাবটিতে ১৩ নেপালি নাগরিক কাজ করত বলে কাগজপত্র পাওয়া গেছে। তাদের ভিসা আবেদনপত্র, নামের লিস্ট ও সেলারি লিস্টসহ আরও কাগজপত্র পেয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এই ১৩ নেপালি নাগরিক এই ক্যাসিনোটি পরিচালনা করত।

একই সময় ভিক্টোরিয়া ক্লাবে অভিযানে কারিশনা শারেস্তা নামের একজনের ভিজিটিং কার্ড পাওয়া যায়। সেখানে তিনি অ্যাসিসটেন্ট ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে চাকরি করতেন। কার্ডে থাকা নম্বরে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। বলা হয় তিনি কি এখন বাংলাদেশে? বলেন ‘হ্যাঁ’। ক্যাসিনোর বিষয়ে প্রশ্ন করতেই বলেন, ‘আই এম বিজি।’ পরে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলের ভিক্টোরিয়া ক্লাব, মোহামেডানসহ চারটি ক্লাবে অভিযান চালিয়ে নগদ টাকা, মদ, বিয়ার, জুয়া ও ডিজিটাল ক্যাসিনোর সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব থেকে ১৬টি ডিজিটাল ক্যাসিনো বোর্ড উদ্ধার করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২২সেপ্টেম্বর/এসএস/বিইউ/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :