মেহেরপুরে সড়কে অভিযান, বাড়ছে হেলমেটধারী মোটরবাইক আরোহী

মেহেরপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:৫৪

মেহেরপুরে সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধ, হেলমেট ব্যবহার ও অনিবন্ধিত মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে মাসখানেক আগে অভিযান শুরু করেছে জেলা পুলিশ। এ অভিযানে আটক হয়েছে কয়েকশ মোটরসাইকেল। সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে কাজ করছে পুলিশ। এই অভিযান অব্যাহত থাকলে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব পাবে সরকার- বলছে বিআরটিএ অফিস।

মোটরসাইকেল চালক গাংনীর কাজিপুর ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আসাদ জানান, ট্রাফিক পুলিশ হেলমেটের জন্য যে অভিযান চালাচ্ছে-  এটি প্রশংসার দাবিদার। এই অভিযানকে স্বাগত জানাচ্ছি। যারা করছেন না তারা যেন হেলমেট ব্যবহার করেন। দুর্ঘটনা ঘটলে হেলমেট না থাকলে বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

মেহেরপুর ট্রাফিক ইন্সপেক্টর ইসমাইল হোসেন বলেন, কয়েকটি দলে ভাগ হয়ে জেলার কোন না কোন স্থানে প্রতিদিনই অভিযান করছে ট্রাফিক পুলিশ। ট্রাফিক অফিসে জেলায় অনিবন্ধিত মোটরসাইকেলের সঠিক পরিসংখ্যান না থাকলেও চলমান অভিযানে অনিবন্ধিত মোটরসাইকেল আটক হয়েছে প্রায় ৫০০-এর অধিক। ড্রাইভিং লাইসেন্স ও ইন্স্যরেন্স না থাকায় মামলা হয়েছে প্রায় দেড় হাজার। চলমান অভিযান অব্যাহত থাকায় সড়কে চলাচলকারীদের মাঝে বেড়েছে হেলমেটের ব্যবহার।

মেহেরপুর বিআরটিএ মোটরযান পরিদর্শক সালাউদ্দিন প্রিন্স বলেন, বর্তমানের মেহেরপুর ট্রাফিক পুলিশ সড়কে যে অভিযান শুরু করেছে সেটার পরিপ্রেক্ষিতে নিবন্ধনের উপরে গ্রাহকের যে অনিহা ছিল সেটা অনেকাংশে বেড়ে গেছে। যারা রেজিস্ট্রেশন করেনি তারা এখন করছে। ফলে সরকার অনেক রাজস্ব পাচ্ছে। এই অভিযান অব্যাহত থাকলে মেহেরপুরে অনিবন্ধিত মোটরসাইকেল নিবন্ধনের আওতায় আসবে এবং বিপুল পরিমাণ রাজস্ব আদায় হবে। আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে রাজস্ব আদায় হয়েছে প্রায় ৭২ লাখ টাকা।

পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আহম্মেদ ঢাকা টাইমসকে জানান, জরিমানা আদায় করে আর মামলা দিয়ে কিন্তু সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো সম্ভব না। সড়কে জীবনহানি, অঙ্গহানি হয়ে যে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে যায় পরিবারের সেই পরিবারটি বার্ডেন হয়ে যায়- এটাই আমাদের মুখ্য উদ্দেশ্য, যাতে আমরা সবাই নিরাপদ থাকি। সড়কে কোন প্রকার অবৈধ যানবাহন চলতে দেয়া যাবে না।

(ঢাকাটাইমস/১০অক্টোবর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :