রাহির স্বপ্নপূরণ

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:৪৪

ভারতের বিরুদ্ধে ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টে চার উইকেট শিকার করেছিলেন টাইগার পেসার আবু জায়েদ রাহি। ম্যাচের দ্বিতীয় দিন সকালে চেতেশ্বর পূজারা ও বিরাট কোহলিকে ফিরিয়ে এক সময় ভারতকে চাপে ফেলে দিয়েছিলেন সিলেটের এই তরুণ পেসার।

প্রথম দিন রোহিত শর্মার উইকেটটিও পেয়েছিলেন তিনিই। তাঁর আউটসুইংয়েই ৩২ রানে মায়াঙ্ক আগারওয়ালের ক্যাচ ফেলে দেন ইমরুল কায়েস। বাংলাদেশের সম্ভাব্য নায়ক হয়ে ওঠা এই পেসারের কাছে কোহলির উইকেটই ছিল স্বপ্নপূরণ। কীভাবে আরও উন্নতি করা যায়, তা ম্যাচ শেষে জানতে গিয়েছিলেন ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ শামির কাছে।

ভারতীয় পেসারই যে তাঁর অনুপ্রেরণা। ভবিষ্যতে শামির মতো সিম পজিশন রেখে বল করাই লক্ষ্য রাহির। তিনি বলেছেন, ‘শামি ভাইয়ের মতো বল করতে পারলে খুব ভাল লাগবে। ম্যাচ শেষে ওর থেকে পরামর্শও চাইতে গিয়েছিলাম। শামি ভাইয়ের উচ্চতা আমারই মতো। এবার সিম পজিশনও যদি উন্নত করতে পারি তাহলে এক দিন হয়তো ওর মতোই বোলার হয়ে উঠতে পারব।’

রাহি আরও বলেন, ‘প্রথম দিন শামি ভাই যখন বল করছিল, তা মন দিয়ে লক্ষ্য করেছি। ওর থেকে অনেক কিছু শেখার আছে।’

কোহলি, পূজারার উইকেট পেয়েছেন। কেমন ছিল সেই অনুভূতি? রাহির উত্তর, ‘কোহলির উইকেট পাওয়া আমার কাছে স্বপ্নের মতো। কোহলিকে আউট করতে পেরে খুব ভাল লাগছে। সত্যি স্বপ্নপূরণ।’

গোলাপি বলে এখনও খেলার অভিজ্ঞতা হয়নি রাহির। ইংল্যান্ড থেকে তাঁর মেজভাই একটি গোলাপি বল উপহার হিসেবে নিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু তাতে বল করে দেখা হয়নি। রাহি মনে করেন, ‘গোলাপি বল বেশি সুইং করতে পারে। তাছাড়া ভারত ও বাংলাদেশ দুই দলই গোলাপি বলের বিরুদ্ধে প্রথম খেলবে। তাই কোনও দলই এগিয়ে আছে বলা যাবে না। যারা ভাল খেলবে তারাই জিতবে।’

(ঢাকাটাইমস/১৮ নভেম্বর/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :