এলাকাবাসীর তোপের মুখে স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের এক্সরে মেশিন ফেরত

বাউফল প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৮:২৫ | প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৮:২১

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে এক্সরে মেশিন ৩০০ এমএ কোয়ালিটির দেওয়ার বিধান থাকলেও হস্তান্তরের সময় দেওয়া হয় ২০০ এমএ। এমনকি মেশিন খোলার পর দেখা গেল মরিচাপড়া ও দেখতে পুরনো।

কিন্তু বিষয়টি এলাকাবাসীর নজরে এলে তোপের মুখে পড়ে মেশিন নিয়ে আসা ব্যাক্তিরা। এক পর্যায়ে মেশিনটি ফেরত দিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা। বুধবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স চত্বরে এ ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে সারাদেশের ৬৫টি স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ৩০০ এমএ কোয়ালিটির এক্সরে মেশিন সরবরাহের জন্য টেন্ডার আহ্বান করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় ওষুধাগার (সিএমএসডি)। টেন্ডার প্রক্রিয়ায় অংশ নিয়ে আহমেদ এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠান চীন থেকে এক্সরে মেশিনগুলো আমদানি করে। কিন্তু ৩০০ এমএ কোয়ালিটির এক্সরে মেশিন সরবরাহের শর্ত থাকলেও ২০০ এমএ মেশিন আমদানি করে ওই প্রতিষ্ঠান।

একটি ট্রান্সপোর্ট এজেন্সির মাধ্যমে বুধবার বাউফল ও কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের জন্য দুইটি এক্সরে মেশিন সরবরাহ করা হয়। বাউফল স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের সামনে ট্রাক থেকে বাক্সবন্দী পানিতে ভেজা এক্সরে মেশিন নামিয়ে স্টোরে নেওয়ার সময় এলাকাবাসীর নজরে পড়ে। এরপর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের কয়েকজন কর্মচারী ওই বাক্স খুলে পুরানো মরিচা ধরা যন্ত্রপাতি দেখতে পান।

বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর এলাকাবাসী ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেন। পরে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর তোপের মুখে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ওই এক্সরে মেশিন ফেরত পাঠাতে বাধ্য হন।

বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার সাহা বলেন, ‘চুক্তি অনুযায়ী ৩০০ এমএ এক্সরে মেশিন সরবরাহ না করায় আমরা তা ফেরত পাঠিয়েছি।’

(ঢাকাটাইমস/২৮অক্টোবর/পিএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :