করোনামুক্ত হলেন ডিআইজি হাবিব

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৭:১৮ | প্রকাশিত : ০৮ এপ্রিল ২০২১, ১৫:৪৫

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছেন পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান। গত ২৩ মার্চ করোনায় সংক্রমিত হওয়ার পর টানা ১৬ দিন রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গতরাতে বাসায় ফিরেছেন তিনি।

বুধবার দিবাগত রাতে নিজের ফেসবুক পেজে এক পোস্ট দিয়ে হাবিবুর রহমান নিজেই তার করোনামুক্ত হওয়ার খবরটি জানিয়েছেন। পোস্টে পুলিশের এই কর্মকর্তা লিখেছেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে দীর্ঘদিন ছিলাম। গতরাতে বাসায় ফিরে এসেছি।

শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি লিখেছেন, গত ১৫ দিনে এত বেশি শুভানুধ্যায়ী আমার জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন, আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছেন, সুস্থ হওয়ার জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার পাঠিয়েছেন; তাদের সবার নাম উল্লেখ করা ফেসবুকের এই সীমিত পরিসরে সম্ভব নয়। সবার প্রতি আমার ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

ডিআইজি হাবিব আরও লিখেছেন, হাসপাতালের নিয়মের কারণে, অনেক প্রিয় মানুষ দেখা করতে এসেছেন, বেশিরভাগই দেখা করতে না পেরে ফিরে গেছেন। নিজে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিকে তুচ্ছজ্ঞান করে, আমার প্রতি যে মমতা সবাই দেখিয়েছেন; সবার প্রতি আমি আমার আন্তরিক শুভকামনা জানাচ্ছি। যারা দেখা করতে এসে ফিরে গেছেন, তাদের কাছে আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আপনাদের সহযোগিতার কারণেই হয়ত আমি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরে এসেছি।

হাবিবুর রহমান আরও লিখেছেন, আমার অনেক প্রিয়, স্নেহাস্পদ ও শ্রদ্ধাভাজন আমার জন্য দোয়া করেছেন। অনেকে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছেন। মহান আল্লাহ নিশ্চয়ই আপনাদের দোয়া কবুল করেছেন। আপনাদের প্রতি আমি মোবারকবাদ জানাচ্ছি। আমি হয়ত সবার কথা লিখতে পারছি না। তবে সবাই জানবেন, আমি আপনাদের সবার নাম সযত্নে সংরক্ষণ করেছি। আপনাদের এই ভালোবাসা কোনোদিন ভুলে যাওয়ার নয়।

মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত হাবিবুর রহমানের ভূমিকার কারণে বেদে এবং হিজড়া জনগোষ্ঠীর অনেকের সামাজিক অবস্থানে পরিবর্তন এসেছে। ১৯৬৭ সালে গোপালগঞ্জের চন্দ্র দিঘলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন হাবিবুর রহমান। ১৭তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে তিনি সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে যোগ দেন। কর্মক্ষেত্রে সততা, সাহসিকতা, দক্ষতা আর সময়োপযোগী ও দূরদর্শী নেতৃত্বগুণের কারণে এরই মধ্যে সুখ্যাতি পেয়েছেন তিনি। তিনবার বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও দুইবার রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) পেয়েছেন। পেশাগত কাজের বাইরে তিনি একজন ক্রীড়া সংগঠকও।

ঢাকাটাইমস/০৮এপ্রিল/এসএস/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :