ঢাবির বটতলায় দর্শন বিভাগের ব্যতিক্রমধর্মী ক্লাস

ঢাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০:৩৩

ব্যতিক্রমধর্মী ক্লাসের অংশ হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) দর্শন বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের দ্বিতীয় সেমিস্টারের একটি ক্লাস কলাভবনের সামনে অবস্থিত বটতলায় নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোছা. রেবেকা সুলতানা ১০৬ কোর্সের (ইন্ট্রোডাকশন টু সাইকোলজি) এই ক্লাসটি নেন। এসময় প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ ঘটানো ও প্রকৃতির সঙ্গে মিশে গিয়ে পঠনপাঠনের অনুভূতি কী রকম হয় সেটা অনুভব করাতে ব্যতিক্রমধর্মী এই ক্লাসের আয়োজন। শিক্ষার্থীরাও এ ধরনের ব্যতিক্রমী ক্লাসে বেশ ভালোই উপভোগ করেছেন। ঝুলিতে অর্জিত হয়েছে নতুন সব অভিজ্ঞতা।

বটতলার ক্লাসের ব্যাপারে সহযোগী অধ্যাপক মোছা. রেবেকা সুলতানা ঢাকা টাইমসকে বলেন, বদ্ধ ক্লাসরুমে শিক্ষার্থীর মুক্তচিন্তার পরিবেশ গড়ে উঠে না। প্রকৃতির সঙ্গে মিশে গেলে ক্লাসের অনুভুতি কী হতে পারে, সেই বিষয়টি অনুভব করানোর জন্য ক্লাসরুমের বাইরে এই ক্লাসটি নিয়েছি। শিক্ষার্থীরাও ক্লাসটিকে খুব ইতিবাচকভাবে নিয়েছে। আমি যখন বিশ্বভারতী থেকে ফিরে আসি, এরপরে ২০১৬ সাল থেকেই এধরনের ক্লাস নেই। আমি দেখেছি বিশ্ব ভারতীতে বা শান্তিনিকেতনে বেশিরভাগ ক্লাসই গাছের নিচে হয়। সেখান থেকে যারা পড়াশোনা করেছে তাদের অনেকেই নোবেল পুরস্কার পেয়েছে বা বিশ্ব নাগরিক হিসেবে তাদের সুখ্যাতি রয়েছে। এছাড়াও প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ নেই বিধায় আমাদের সন্তানেরা বিপথে যাচ্ছে। তাদেরকে এই ক্লাসের মাধ্যমে প্রকৃতির সঙ্গে সংযোগ করিয়ে দেওয়ার একটা চেষ্টা করেছি।

খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করার মাধ্যমে বড় রকমের অর্জন হয়েছে মন্তব্য করে মো. রঞ্জু ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমরা খোলা আকাশের নিচে ক্লাস করতে পেরে আনন্দিত। যান্ত্রিকতার এই শহরে মুক্ত প্রকৃতির মাঝে সবাই মিলে ক্লাস করতে পারছি। এর থেকে বড় প্রাপ্তি আর কী হতে পারে! এই ক্লাসটার জন্য আমরা অত্যন্ত উৎসাহী ছিলাম। আমাদের জীবনে এক নতুন অভিজ্ঞতা অর্জিত হলো এই ক্লাসের মাধ্যমে।

খোলা আকাশের নিচে আরো ক্লাস করতে চায়। এ বিষয়ে মাহবুবুর রহমান সবুজ ঢাকাটাইমসকে বলেন, এরকম ক্লাস বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশে এসে প্রথমবারের মতো করলাম। অন্যরকম একটা অনুভূতি কাজ করছে আমার মধ্যে। প্রকৃতির মধ্যেও যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসগুলো সুন্দরভাবে করা যায়, তা আজ বুঝলাম। আমরা এরকম ক্লাস আরও পেতে চাই।

(ঢাকাটাইমস/২৮অক্টোবর/আরএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :