এরশাদের জোটকে স্বাগত জানাই: আবদুর রহমান

মাগুরা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ মে ২০১৭, ১৮:৫৫

৫৮টি দল নিয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ যে সম্মিলিত জোট গঠন করেছেন তাকে স্বাগত জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান।

সোমবার মাগুরায় ছাত্রলীগের এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এই স্বাগত জানান। দুপুরে মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ মাঠে জেলা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

গতকাল নামসর্বস্ব ৫৮টি দল নিয়ে জোটের ঘোষণা দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এই জোটে নিবন্ধিন দলের সংখ্যা মাত্র দুটি।

আবদুর রহমান এমপি বলেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো সহায়ক সরকার হবে না। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাই হবেন নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধানমন্ত্রী। নির্বাচন নিয়ে বেগম খালেদা জিয়া যে দুঃস্বপ্ন দেখছেন তা এ বাংলার মাটিতে বাস্তবায়ন হবে না।’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত দুর্নীতির মামলায় সাজা হলে তাকেও জেলে যেতে হবে। তিনি অন্ধকার গলিপথের মাধ্যমে ক্ষমতায় গিয়ে তারেক-মামুনদের রক্ষার যে স্বপ্ন দেখছেন তা সফল হবে না।’

দেশের উন্নয়ন, সমৃদ্ধি অব্যাহত রাখাসহ উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীসহ সবার প্রতি আহ্বান জানান আবদুর রহমান।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ রেজাউল ইসলামের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ। প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।  বিশেষ অতিথি ছিলেন মাগুরা-২ আসনের এমপি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার, মাগুরা-১ আসনের এমপি মেজর জেনারেল (অব.) এটিএম আব্দুল ওয়াহহাব, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুন্ডু, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবু নাসির বাবলু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রোস্তম আলী, পৌর মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল প্রমুখ। 

একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, ‘ছাত্রলীগ হচ্ছে একটি আদর্শ ঐতিহ্য গৌরবের নাম। বাংলাদেশের প্রতিটি অর্জন ছাত্রলীগ ছাড়া হয়নি। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তার দক্ষতা ও যোগ্যতা দিয়ে আজ বিশ্বনেতার সম্মান অর্জন করে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করেছেন।’

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি তোফাজ্জেল হক চয়ন, আবু হুসাইন বিপু, সহ-সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম সোহাগ, আল্লামা ইকবাল, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈকতুজ্জামান সৈকত, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শাখারুল ইসলাম শাকিল, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মেহেদী হাসান রুবেল প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/০৮মে/প্রতিনিধি/জেবি)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত