ডিজিটাল হচ্ছে আওয়ামী লীগের তৃণমূল

তানিম আহমেদ, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ মে ২০১৭, ০৮:২২

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে দলীয় কার্যক্রমে খামে ভরা চিঠিকে সেকেলে ভাবছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এ জন্য কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যায়ে নানা নির্দেশ এবং নির্দেশনা পাঠাতে আর চিঠি ব্যবহার করবে না দলটি। ই মেইল ব্যবহার করেই কেন্দ্রের বক্তব্য পাঠানো হবে তৃণমূলে।

দলটির নেতারা জানিয়েছেন, দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে গণমাধ্যমে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয় ই-মেইলে। কিন্তু সাংগঠনিক জেলায় বিভিন্ন নির্দেশনা পাঠানো হচ্ছে খামে করে পোস্ট অফিস বা কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে। এতে করে দলীয় নির্দেশনা তৃণমূলে পৌঁছাতে দীর্ঘ সময় লাগে। পাশাপাশি এর জন্য একাধিক লোককে নিয়োজিত করতে হয়।

এই সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তৃণমূল আওয়ামী লীগকে দলীয় ই মেইল খুলতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ইমেইল চালাচালি ও সাংগঠনিক জেলার ওয়েবসাইট কীভাবে চালাতে হয়, সে জন্য প্রশিক্ষণও দেয়া হবে তৃণমূলের নেতাদের। আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এই দায়িত্ব পালন করবে।

জানতে চাইলে সিআরআই-এর সহকারী সমন্বয়ক তন্ময় আহমেদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আগে আমরা সংসদ সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলাম। পরে সাংগঠনিক জেলার দপ্তর ও উপ দপ্তর সম্পাদক, প্রচার ও উপ-প্রচার সম্পাদক এবং তথ্যও গবেষণা সম্পাদকদের প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তৃণমূলের নেতাদেরও একইভাবে আমরা প্রশিক্ষণ দেব। দলীয় সভাপতির কাছে আমরা একটি প্রস্তাব দিয়েছি। তিনি মৌখিক সমর্থন দিয়ে রেখেছেন। এখন আমরা লিখিত প্রস্তাব দেব। এটা অনুমোদনের পর আমরা প্রশিক্ষণের কাজ শুরু করব।’

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের দিক-নির্দেশনা বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির বিপ্লব হচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ স্বপ্ন নয়, বাস্তব। আমরা আমাদের তৃণমূলকে তথ্য-প্রযুক্তির নেটওয়ার্কের নিয়ে আসতে কাজ করছি। এজন্য আমরা তৃণমূলের নেতাদের ডাটাবেজ সংগ্রহ, তাদের ই-মেইল ও ফেসবুক আইডি সংগ্রহ করছি। এর মাধ্যমে আমরা আমাদের তথ্য আদান-প্রদান করব।’

এ কার‌্যক্রমের অংশ হিসাবে রবিবার রাজধানীর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক জেলার দপ্তর ও উপ-দপ্তর সম্পাদকদের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রচারের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এখন কেন্দ্রীয়ভাবে দেয়া হলেও আগামীতে এ প্রশিক্ষণ জেলাওয়ারী দেয়া হবে। সেখানে জেলার নেতারা ছাড়াও উপজেলা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতারাও থাকবেন।

আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, দলের তৃণমূলে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহারের জন্য গত শনিবার অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টার পক্ষ থেকে সাংগঠনিক জেলাগুলোকে ল্যাপটপ উপহার দেয়া হয়।

দলটির কয়েকটি সাংগঠনিক জেলার দপ্তর ও উপ-দপ্তর সম্পাদকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, জেলার তথ্য আদান প্রদানে তারা এখনও ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করেন না। এখনও ফ্যাক্সের মাধ্যমে সাংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পাঠান। আবার সাংগঠনিক জেলার নেই কোন নিজস্ব মেইল আইডি।

নাম-প্রকাশে অনিচ্ছুক সিলেট বিভাগের একটি জেলার দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত একজন নেতা ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমাদের জেলা আওয়ামী লীগের কোন ই-মেইল আইডি নেই। আমি আমার ব্যক্তিগত ই-মেইল বা ফেসবুকের মাধ্যমে আমাদের তথ্য সাংবাদিক এবং দলের নেতাকর্মীকে জানাই।’

এই নেতা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির ই-মেইল আইডি রয়েছে সেটাও জানেন না। পরে এ প্রতিবেদকের কাছে দলের ই-মেইল আইডি জেনে নেন।

ঢাকা বিভাগের একটি জেলার উপ-দপ্তর সম্পাদক ই-মেইল সম্পর্কেই জানেন না। তাঁর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে ল্যাপটপ দেয়া হয়েছে। এটার ব্যবহারের জন্য সবার সাথে বৈঠক করে সিদ্ধান্তও নেব। পরে আপনাকে জানাব।’

ঢাকাটাইমস/২২মে/টিএ/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত