তালগাছ না পেয়ে কুপিয়ে হত্যা

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ জুন ২০১৭, ২০:৪৩

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় জমিজামা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের নাম মো. মজিবর খাঁ (৫০)।

রবিবার দুপুর আড়াইটার দিকে বাসাইল ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।   
নিহত মো. মজিবর খাঁ সিরাজদিখান উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের মৃত জাহেদ খানের বড় ছেলে। তিনি আগে কৃষি কাজ করতেন। পরে বেকারি ব্যবসায় যুক্ত হন। নিহত মজিবর খাঁর তিন ছেলে এক মেয়ে।

নিহতের ছোট ভাই সাইদুল খান ও নিহতের স্ত্রী এলিজা বেগম অভিযোগ করে বলেন,  বাসাইল গ্রামের মৃত বাবুল খানের ছেলে নুরু খানের (৩০) সাথে জমি ও বাড়ির ১৫ শতাংশ জায়গায় তাদের ভাগ রয়েছে। এর মধ্যে পৌনে দুই শতক জায়গা পাবেন নুরু। কিন্তু ভাগাভাগিতে মূল জমিতে থাকা তালগাছ নুরুকে না দেওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়। পরে আজ বেলা দেড়টার দিকে বাড়িতে থাকা তালগাছে আগুন লাগিয়ে দেয় নুরু। পরে চাকু ও চাপাতি নিয়ে মো. মজিবর খাঁর বাড়ি আসার অপেক্ষা করতে থাকে নুরু। ইমামগঞ্জ থেকে দুপুরে মো. মজিবর খাঁ নামাজ পড়ে বাড়ির কাছাকাছি আসলেই আগে থেকে ওৎপেতে থাকা নুরু চাকু ও চাপাতি দিয়ে কুপাতে শুরু করে। মো. মজিবর খাঁর চিৎকারে আশপাশের বাড়ির লোকজন এসে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. মজিবর খাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

সিরাজদিখান ইছাপুরা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রাসেদুল আলম বলেন, নিহত মো. মজিবর খাঁকে হাসপাতালে আনার আগেই মারা গেছেন। তার গায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

সিরাজদিখান থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. ইয়ারদৌস হাসান জানান, জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে মো. মজিবর খাঁ সঙ্গে স্থানীয় কয়েকজনের কিছুদিন ধরে বিরোধ চলছিল। আজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বেরিয়ে এলাকায় যাওয়ার পর মো. মজিবর খাঁকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিরাজদিখান ইছাপুরা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

(ঢাকাটাইমস/০৪জুন/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত