সভাপতি নির্বাচন নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বারের সভায় যা ঘটলো

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ মে ২০২১, ১৯:৫৩

২০২১-২২ সেশনের নির্বাচনে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি হয়েছিলেন আব্দুল মতিন খসরু। তিনি দায়িত্ব নেন গত ১২ এপ্রিল। ১৪ এপ্রিল অসুস্থ মতিন খসরু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এতে সভাপতির পদ শূন্য হয়। সেই শূন্য পদ পূরণ করতে আজ ৪ মে বিশেষ সাধারণ সভা ডাকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। সেখানে হট্টগোলের কারণে সভা পণ্ড হয়ে যায় বলে জানা গেছে।

তবে, আওয়ামী লীগপন্থী আইনজীবীরা বলছেন, সাধারণ সভায় কণ্ঠভোটে এ এম আমিন উদ্দিন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। এব্যাপারে আইনজীবী সমিতির সম্পাদক বিএনপিপন্থী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেছেন, হট্টগোলের কারণে বিশেষ সাধারণ সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়েছে।

সভা সূত্রে জানা যায়, সভাপতি নির্বাচনে মঙ্গলবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে এ সভায় মিলিত হন আইনজীবীরা। এতে সভাপতি কাকে করা হবে এ নিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের মধ্যে তুমুল হট্টগোল শুর হয়। সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব কে করবেন তা নিয়েই মূলত হট্টগোলের শুরু বলে জানিয়েছেন প্রতক্ষ্যদর্শী আইনজীবীরা।

তারা জানান, সভার শুরুতে সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ঘোষণা দেন, বারের সংবিধান অনুযায়ী তিনি সভা পরিচালনা করবেন। তখন একপক্ষ বিরোধিতা শুরু করলে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ শফিক উল্লাহ দাঁড়িয়ে ঘোষণা দেন তিনি সভার সভাপতিত্ব করবেন।

এ সময় কাজল বলেন, উনাকে সভাপতিত্ব করার কোনো কার্যবিবরণী পাস হয়নি। সিনিয়র আরেকজন সহ-সভাপতি আছেন। তখন শফিক উল্লাহ বলেন, আমি আজকের সভার সভাপতি। এই সভা থেকে ঘোষণা করছি, আজ থেকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন। তখন আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা তাকে সমর্থন দেন। আর বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা এর বিরোধিতা করতে থাকেন। তারা উচ্চস্বরে বলতে থাকেন, কণ্ঠভোট নয়, নির্বাচন চাই। এক পর্যায়ে মিলনায়তনের বৈদ্যুতিক সংযোগ ও মাইকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়। মঞ্চের ওপর ধাক্কাধাক্কির ও বাক বিতণ্ডার ঘটনাও ঘটে।

তখন সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, সাধারণ সভা করার মতো পরিবেশ-পরিস্থিতি না থাকায় সভা মুলতবি করা হলো। অন্যদিকে সাধারণ সভা পণ্ড হওয়ার পর সহ-সভাপতি শফিক উল্লাহর নেতৃত্বে আওয়ামীপন্থী কার্যনির্বাহীর সদস্যরা রেজুলেশন পাস করে এম আমিন উদ্দিনকে সভাপতি ঘোষণা করেন।

এরইমধ্যে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক এক বিজ্ঞপ্তিতে জানান উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কোনো আলোচনা ও সিদ্ধান্ত ছাড়াই পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বিশেষ সাধারণ সভা মুলতবি ঘোষণা করা হয়।

এ ব্যাপারে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, আমি শুনতে পেলাম আজ (৪ মে) বিশেষ সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সভাপতি হিসেবে আমার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। আমাকে যদি আবারও সভাপতি নির্বাচিত করা হয় আমি বিগত দুই বছরের মতো বারের উন্নয়নকাজ করে যাব।

(ঢাকাটাইমস/০৪মে/এআইএম/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :