শেখ রাসেলের জন্মদিনে শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২৩

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র।

সোমবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ক্লাবটির মাঠে ‘শহীদ শেখ রাসেল শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা-২০২১’র আয়োজন করা হয়।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে সকাল থেকেই ক্লাবটির মাঠ মুখরিত ছিল শিশু কিশোরদের আগমনে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রণকারী সবার হাতে ছিল রং-তুলি আর স্কেচবোর্ড।

প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির প্রায় দুই শত শিক্ষার্থী অংশ নেয়। প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল ‘শেখ রাসেলকে নিয়ে যা আঁকতে ভালো লাগে’। দেড় ঘণ্টার প্রতিযোগিতায় শিশুরা রঙ-তুলিতে নিজের মতো করে শেখ রাসেলের জীবনের নানা মুহুর্তের চিত্র তুলে ধরেন।

প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী মো. মিনহাজ জামান। পুরস্কার হিসেবে তাকে দেওয়া হয়েছে এক লাখ টাকা। দ্বিতীয় হয়েছেন ভিকারুননিসা নূন স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী মিথিলা ভৌমিক। তাকে দেওয়া হয়েছে ৫০ হাজার টাকা। তৃতীয় বিজয়ী নারায়ন আইডিয়াল স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী শ্রেয়সী সাহা পুরস্কার হিসেবে পেয়েছে ২৫ হাজার টাকা। এছাড়াও তিন বিজয়ীকে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট ও স্কুল ব্যাগসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ দেওয়া হয়।

প্রতিযোগিদের মধ্যে ২৭ জনকে শুভেচ্ছা পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয় স্কুল ব্যাগসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ। অংশগ্রহণকারী সকলকেই শিক্ষা উপকরণসহ সার্টিফিকেট ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের পরিচালক সালেহ জামান সেলিম ও ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ লাভলু, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারক ছিলেন বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপের পরিচালক ইমদাদুল হক মিলন। সহকারী বিচারক ছিলেন শহীদ আনোয়ার উচ্চ বিদ্যাললের চারুকলা শিক্ষক শেখ ফারহানা টুম্পা এবং তরুণ শিল্পী ও কালের কণ্ঠের কার্টুনিস্ট প্রসূন হালদার।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ লাভলু বলেন, ‘শহীদ শেখ রাসেল নিহত হওয়ার আগ পর্যন্ত বিভিন্ন ক্ষেত্রে তার মেধার স্বাক্ষর রেখে গেছেন। শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিসম্পন্ন মানুষদের কাছে এক ভালোবাসার নাম। শেখ রাসেলের এই ছোট্ট জীবন আমাদের জন্য অনেক শিক্ষণীয়।’

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজনের বিষয়ে অভিভাবকরা বলেন, ‘করোনার কারণে শিশুরা দীর্ঘদিন ঘরবন্দি ছিল। সকল ধরনের আয়োজন বন্ধ থাকায় কোথাও অংশগ্রহণের সুযোগ ছিল না তাদের। শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে এই প্রতিযোগিতার আয়োজনে শিশুরা খুব আনন্দের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেছে। এমন প্রতিযোগিতা আয়োজনের জন্য শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ক্লাবের সবাইকে ধন্যবাদ জানান অভিভাবকরা।

ঢাকাটাইমস/১৮অক্টোবর/এসআর/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :