নরসিংদীতে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে যুবক নিহত, ১৪৪ ধারা জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক, নরসিংদী
| আপডেট : ১৯ এপ্রিল ২০১৭, ১৭:৪৭ | প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০১৭, ১৭:৪৪
ফাইল ছবি

এলাকার  আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চর এলাকা বাঁশগাড়ীতে দুই দল গ্রামবাসীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে ফারদিন মিয়া নামে এক যুবক নিহত ও কমপক্ষে ৪০ জন আহত হয়েছেন।

বুধবার দুপুরে বাঁশগাড়ীতে এই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়।

নিহত ফারদিন মিয়া পাশ্ববর্তী নিলক্ষা গ্রামের মজিবর মিয়ার পুত্র বলে জানা গেছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রায়পুরা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে এলাকায়  ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বাঁশগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল হক ও সাবেক চেয়ারম্যান শাহেদ সরকার এর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার আধিপত্য নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল।

এরই জের হিসেবে বুধবার দুপুরে দুই দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষ চলাকালে দুই দলই টেটা-বল্লম ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় গুলিতে ফারদিন মিয়া নামে একজন মারা যায়। এছাড়া গুলিবিদ্ধ ও টেটাবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে কমপক্ষে আরো ৪০ জন। আহতদের নরসিংদী সদর হাসপাতাল, জেলা হাসপাতাল এবং বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ দুই জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। ওই সময় প্রতিপক্ষরা বেশ কয়েকটি বাড়ি ঘরে ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। অগ্নিসংযোগ করা হয় কমপক্ষে ১০টি বাড়িঘরে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

রায়পুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৯এপ্রিল/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত