আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে এক হয়ে কাজ করার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ জুন ২০১৭, ১০:০০ | প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৭, ২০:৫২

আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার তাগিদ দিয়েছেন উপজেলার বিশিষ্ট নাগরিকরা। তারা বলেছেন, আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নজর রয়েছে। এই সরকারের সময় আলফাডাঙ্গার রাস্তাঘাটসহ ব্যাপক অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে। এই ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে।

শুক্রবার ‘আলফাডাঙ্গা উন্নয়ন পথরেখা (টগরবন্দ ইউনিয়ন) ঢাকা’র ইফতার মাহফিলে এ তাগিদ দেয়া হয়। ইফতার মাহফিলটি আয়োজিত হয় গুলশান-১ নম্বর সেক্টরের ইমানুয়েল’স ব্যাংকুয়েট হলে।

সংগঠনের সভাপতি সাবেক পুলিশ সুপার মালিক খসরুর সভাপতিত্বে  এতে বক্তব্য দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি শামসুদ্দিন আহমেদ মানিক, সিআইডি প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক শেখ হেমায়েত হোসেন, ঢাকাটাইমস ও সাপ্তাহিক এই সময় সম্পাদক এবং কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান দোলন, পর্যটন করপোরেশনের সাবেক চেয়ারম্যান তালুকদার হেমায়েত হোসেন, আলফাডাঙ্গা উন্নয়ন পথরেখার সাধারণ সম্পাদক আলীমুজ্জামান সিকদার বাবু প্রমুখ।

বিচারপতি শামসুদ্দিন আহমেদ মানিক সবাইকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করার তাগিদ দিয়ে বলেন, এ ব্যাপারে সবাইকে যার যার অবস্থান থেকে কাজ করতে হবে।

নির্বাচনে আলফাডাঙ্গার গুরুত্ব তুলে ধরে সিআইডি প্রধান শেখ হেমায়েত হোসেন বলেন, ‘মধুখালী ও বোয়ালমারীতে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর ভোট সমান সমান হয়। আলফাডাঙ্গার ভোটে নির্ধারিত হয় বিজয়ী। একসময় আলফাডাঙ্গা অবহেলিত থাকলেও বর্তমান সরকারের আমলে এখানে উন্নয়ন কর্মকা- অনেকটা ত্বরান্বিত হয়েছে।’

সিআইডি প্রধান বলেন, উন্নয়ন ও মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

আলফাডাঙ্গার প্রতি একসময় বিভিন্ন সরকারের অবহেলার কথা উল্লেখ করে কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান দোলন বলেন, ‘অথচ এই উপজেলার ভোট না হলে নৌকার প্রার্থী ফরিদপুর-১ আসনে থেকে নির্বাচিত হতে পারেন না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের প্রতি মনোযোগ দিয়েছেন। আরও আগেই আমরা আলফাডাঙ্গার উন্নয়ন করতে পরতাম যদি সরকারপ্রধানের কাছে তুলে ধরা যেত।’

এ সময় তিনি আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে সবাইকে সম্পৃক্ত করার ওপর গুরুত্ব দেন। আলফাডাঙ্গায় সরকারের উন্নয়নকাজের তথ্য তুলে ধরে ঢাকাটাইমস ও এ সময়ের সম্পাদক আরিফুর রহমান বলেন,  ‘আলফাডাঙ্গার কামারগ্রামে ৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে টিটিসি নির্মাণের কাজ চলছে। কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমীর সামনের মাঠে এটা নির্মিত হচ্ছে।’

আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে সবার সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তার কথা বলতে গিয়ে দোলন বলেন, ‘এই অনুষ্ঠানে সরকারের বিভিন্ন সময় যারা উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ছিলেন, তারা আছেন। এলাকার উন্নয়নে তাদের এবং রাজনীতিকদের সহযোগিতা প্রয়োজন।’

কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আলফাডাঙ্গা এখন মাদকে ছেয়ে গেছে। আপনারা খেয়াল রাখবেন, আমরা যেন আমাদের উপজেলাকে মাদকমুক্ত করতে পারি। টেকসই উন্নয়নের জন্য তরুণসমাজকে মাদকাসক্তি থেকে দূরে থাকতে হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে মালিক খসরু বলেন, ‘শান্তির জন্য, উন্নয়নের জন্য এই সংগঠন প্রয়োজন। এটা শুধু আলফাডাঙ্গা উন্নয়নের পথরেখা নয়, সারা বাংলাদেশের উন্নয়নের পথরেখা। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে একতাবদ্ধ হয়ে আমরা এগিয়ে যেতে চাই।’

পর্যটন করপোরেশনের সাবেক চেয়ারম্যান তালুকদার হেমায়েত হোসেন বলেন, ‘আমি চাকরিতে থাকাকালে বিভিন্ন সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা হয়েছে। তিনি আলফাডাঙ্গাকে নিজের থানা হিসেবে দেখেন। এ থানার প্রতি তার একটা বিশেষ নজর আছে।’ এ সময় তিনি মানবসম্পদ উন্নয়নের প্রতি নজর দিতে বলেন।

আলফাডাঙ্গা উন্নয়ন পথরেখার পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেন সাধারণ সম্পাদক আলীমুজ্জামান সিকদার বাবু। তিনি জানান, এই সংগঠনের সদস্যা ১০৭ জন। তাদের পরিকল্পনা আছে একটি সামাজিক উন্নয়নের জন্য গবেষণা কেন্দ্র গড়ে তোলা। এর জন্য কাজ চলছে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান মনজুর হোসেন, ইউআইটিএসের ভিসি মুহম্মদ সামাদ, নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুর রশিদ, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) কাজী আরিফ, ক্যাপ্টেন আব্দুস সাত্তার বীরপ্রতীক, পিএসসি সদস্য উজ্জ্বল বিকাশ দত্ত, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হাসান, উইং কমান্ডার ফরহাদ হোসাইন মাহমুদ, অভিনেতা পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়, সাবেক ছাত্রনেতা ইসমত কাদির কামাল, ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য শেখ শহীদুল ইসলাম প্রমুখ।

সঞ্চালনায় ছিলেন কৃষক লীগের স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শেখ শওকত আহমেদ।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য কাজী সিরাজুল ইসলামও অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। তবে পরে তিনি চলে যান।

(ঢাকাটাইমস/১৬জুন/এইচএফ/জেআর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত