স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে ট্রাফিক পুলিশের মারধর

ভোলা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:৩৮ | প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:২০

ভোলা শহরের বাংলাস্কুল মোড়ে মোটরসাইকেলের কাগজপত্র যাচাইয়ের সময় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে রাস্তায় ফেলে মারধর করেছেন ট্রাফিক পুলিশের এক কর্মকর্তা।

রবিবার বিকালে শহরের বাংলাস্কুল মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। 

ভুক্তভোগী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হলেন বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সম্পাদক আওলাদ হোসেন। রবিবার বিকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মারধরের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওটি শেয়ার করে অনেকে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন পুলিশের এমন বেপরোয়া আচরণে।

ভিডিওতে দেখা যায়, আওলাদকে বেধড়ক মারধর করছেন ট্রাফিক পুলিশের এটিএসই মো. শাহে আলম। এমনকি তাকে মাটিতে ফেলে বুট দিয়ে লাথি মারতে থাকেন। 

ঘটনার পরে বোরহানউদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতৃবৃন্দ পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযোগ করে অভিযুক্ত এটিএসআই শাহে আলমের বিচার দাবি করেন।

আহত আওলাদ জানান, তিনি ও তার এক বন্ধু ছাত্রলীগ নেতা দুটি আলাদা মোটরসাইকেলযোগে বোরহানউদ্দিন থেকে ভোলা জেলা শহরে আসেন। শহরের বাংলাস্কুল মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ তাদের মোটরসাইকেল আটকায়। আওলাদের কাগজপত্র ঠিক থাকায় পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। কিন্তু তার অপর সঙ্গীর হেলমেট না থাকাসহ কাগজে কিছু ত্রুটির জন্য মোটরসাইকেল আটকে রাখা হয়। এসময়  সময় আওলাদ তার বন্ধুর মটোরসাইকেলটি ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ করতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন সেখানে দায়িত্বরত এটিএসআই শাহে আলম। কাথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এটিএসআই শাহে আলম আওলাদের উপর চড়াও হন। গলার মাফলার ধরে টেনে মাটিতে ফেলে দিয়ে লাথি মারতে থাকেন।

পরে অবশ্য শাহে আলম এমন ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। অভিযোগ আছে, এর আগেও এই ট্রাফিক পুলিশের এই সদস্য একই স্থানে বেশ কয়েকবার ব্যাটারি চালিত অটোচালকদের মারধর করেছেন।

এ ব্যাপারে ভোলা ট্রাফিক পুলিশের এটিএসআই শাহেআলমকে একাধিক তার ব্যহৃত মুঠোফোনে কল দিয়েও ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

ভোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ছগির মিয়া বলেন, দু’জনের মধ্যে সামান্য ভুল বুঝাবুঝি হয়ে ছিল। বোরহানউদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এহছানুল হক কিশোর, সাবেক ছাত্র লীগ সভাপতি বেলায়েত হোসেনসহ নেতৃবৃন্দকে নিয়ে সমঝোতা করে দেয়া হয়েছে।


ঢাকাটাইমস/১৩জানুয়ারি/ ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :