‘সুশাসন প্রতিষ্ঠায় কেউ অন্তরায় হলে দায় দলের নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৪

সুশাসন প্রতিষ্ঠায় যদি কেউ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলার পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়- দল ও সরকার তার দায় নেবে না বলে নেতাকর্মীদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

আওয়ামী লীগের ভিশন বাস্তবায়নে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে দলের নেতাকর্মীদের সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে পাশে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

বুধবার দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

টানা তিনবারের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীকে নবগঠিত মন্ত্রিসভায় নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেয়ায় এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

খালিদ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী দেশের জনগণকে সেবা দিতে চান। তিনি জনগণের ভোটের মর্যাদা দিতে চান। প্রধানমন্ত্রীর এ চলার পথে কোন অন্তরায় সৃষ্টির সুযোগ নেই। সে যে দলেরই হোক, উন্নয়নের পথে বাধা সৃষ্টি করলে তার দায় আমরা নেব না।’

দিনাজপুরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে খালিদ মাহমুদ বলেন, ‘দিনাজপুর জেলা বরাবরই আওয়ামী লীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। এখানকার মানুষ চরম দুঃসময়েও নৌকা ছেড়ে যায়নি। আওয়ামী লীগের প্রতি আপনাদের যে বিশ্বাস; বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আপনাদের সে বিশ্বাসের প্রতিদান দিয়েছেন। আরো দেবেন।’

তিনি বলেন, ‘এ জেলা থেকে অনেকেই জাতীয় পর্যায়ে সম্মানিত হয়েছেন। আমার বাবা মরহুম আব্দুর রৌফ চৌধুরীও এ জেলা থেকে নির্বাচিত এমপি-মন্ত্রী হয়েছিলেন। এ জেলার মানুষ, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আমার রক্তের সম্পর্ক, আত্মার সম্পর্ক। রাজনীতিতে আমার পূর্ব যারা এ জেলা থেকে এমপি-মন্ত্রী হয়েছিলেন তাদের মর্যাদার ধারাবাহিকতা যেন রাখতে পারি; সেজন্য দোয়া করবেন।’

সকালে সড়ক পথে প্রতিমন্ত্রী ঢাকা থেকে দিনাজপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। যাত্রাপথে তিনি রংপুরে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন পরমাণু বিজ্ঞানী মরহুম ড. এম এ ওয়াজেদ (সুধা মিয়া)’র কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে দিনাজপুর শহরে পৌঁছে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতির উদ্দেশ্য চেহেলগাজী গণকবরে শ্রদ্ধা নিবেদন ও বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে দিনাজপুর সার্কিট হাউসে গার্ড অব অনার গ্রহণ করেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী।

বিকালে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে গণসংবর্ধনায় সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে যোগ দেন।

সাবেক মন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ফিজারের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেলের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য দেন জেলার সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইমাম চৌধুরী।

উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক ও মনোরঞ্জনশীল গোপালসহ জেলা আওয়ামী লীগ, ১৪ দল ও অন্যান্য অঙ্গ-সহযোগী সংগঠন এবং বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা।

দিনাজপুর জেলার ১৬টি থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ জেলার সর্বস্তরের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৩জানুয়ারি/টিএ/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :