চুরির টাকায় ২৬ বিয়ে

ফরিদপুর প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ জানুয়ারি ২০২১, ২২:১৭

একে একে ২৬টি বিয়ে করে অবশেষে ২৭ নম্বর বিয়ের আগের দিন ধরা পড়লো বিয়ে পাগল চোরা বাবু(৩৭)। তার সহযোগী আবুল খায়ের মাতুব্বরকেও(৩২) ধরা হয়েছে। বুধবার দুপুরে আটক দুই যুবককে ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ।

এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ভাঙ্গা ও সদরপুর থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে প্রথমে উপজেলার জান্দী গ্রাম থেকে আবুল খায়ের ও পরে সদরপুর উপজেলার আকোটের চর গ্রাম থেকে বাবু শেখ ওরফে চোরা বাবুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আটক আবুল খায়ের মাতুব্বর ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার জান্দী গ্রামের আবু বক্করের ছেলে (৩২) ও বাবু শেখ (৩৭) সদরপুর উপজেলার আকোটেরচর গ্রামের দলিল উদ্দিন শেখের ছেলে। তারা সম্পর্কে ভায়রা ভাই।

পুলিশ জানায়, গত ৩ জানুয়ারি ভাঙ্গা উপজেলায় পর পর কয়েকটি চুরির ঘটনায় মামলা হয়। মামলার সূত্র ধরে প্রথমে জান্দী গ্রাম থেকে আবুল খায়েরকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্য মতে বাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বাবু চোরার দেয়া স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে ভাঙ্গা থানার উপপরিদর্শক আজাদ জানান, অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মেয়েকে বিয়ে করাই ছিল চোরা বাবুর টার্গেট। তার জীবনের দুইটি নেশা। প্রথমটি হলো দামী মোবাইল ফোন সেট চুরি এবং দ্বিতীয়টি হলো নতুন নতুন বিয়ে করে ফূর্তি করা।

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বাবু দিনের বেলায় চুরি করত। দামী মোবাইল ফোনগুলোর আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে তা বিক্রি করতো। সেই টাকায় বিয়ের নেশায় মেতে উঠতো বাবু।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আজাদ আরো জানান, বাবুকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চুরির ঘটনায় তার সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বিভিন্ন কৌশলে প্রতারণা করে এ পর্যন্ত ২৬টি বিয়ে করেছেন বলে জানিয়েছেন। বুধবার দুপুরে দুই যুবককে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে ফরিদপুর আদালতে পাঠানো হয়। পরে আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন।

(ঢাকাটাইমস/১৩জানুয়ারি/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :