চূড়ান্ত পরীক্ষার দাবিতে জাবিতে মানববন্ধন

জাবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:০১

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের (৪৬ ব্যাচ) শিক্ষার্থীরা চূড়ান্ত পরীক্ষা অতি দ্রুত শেষ করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থীর উপস্থিতিতে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৪৬ ব্যাচের শিক্ষার্থী জহির ফয়সালের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি রাকিবুল রনি বলেন, আমরা পরীক্ষা দিতে চাই, তারা নিতে চান না। এই ব্যাচ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সবচেয়ে বেশি। অনলাইনে বা অফলাইনে যেভাবে হোক পরীক্ষা নিন এবং তাদেরকে কর্মক্ষেত্রে যাবার সুযোগ করে দিন। পরীক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের আন্দোলন করতে হয়, এর চেয়ে লজ্জাকর আর কিছু হতে পারে না।

প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের শিক্ষার্থী টুম্পা শাহা বলেন, ২০২১ সালে আমরা চূড়ান্ত পরীক্ষার দাবিতে রাস্তায় নেমেছিলাম। প্রশাসন আমাদেরকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল পরীক্ষা নিয়ে শেষ করবে। কিন্তু আজও সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে পারেনি প্রশাসন। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে আমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়া শেষ করার প্রত্যাশা থাকবে।

সঞ্চালক জহির ফয়সাল বলেন, মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে প্রশাসন আমাদেরকে বারবার ঘোরাচ্ছে। আমরা শিক্ষার্থী, ক্লাস করতে চাই, পরীক্ষা দিতে চাই। অথচ শিক্ষকরা ক্লাস-পরীক্ষা নিতে চান না। আমরা যৌক্তিক দাবি নিয়ে গেলে তারা আমাদের আন্দোলন করতে বলেন। আমরা আন্দোলনে থাকতে চাই না। আমরা চাই লাইব্রেরিতে থাকতে।

জহির ফয়সাল বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীদের মধ্যে অধিকাংশই নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারের। তাই আমাদের চাকরির প্রয়োজন আছে। সময়মতো পড়াশোনা শেষ করতে না পারায় আমরা কর্মক্ষেত্রে যেতে পারছি না। আজকে আমরা রাস্তায় দাঁড়িয়েছি পরীক্ষা দেবার জন্য। প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি, ফেব্রুয়ারির মধ্যে আমাদের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়া হোক।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা ফাইনাল পরীক্ষা দ্রুত শেষ করার দাবি জানান। এ সময় শিক্ষার্থীরা বেশ কিছু দাবি উত্থাপন করেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য দাবিগুলো হলো- ফেব্রুয়ারি-২০২২ এর মধ্যে ৪৬ ব্যাচের স্নাতক চূড়ান্ত পরীক্ষা সম্পন্ন করতে হবে, তিন কার্যদিবসের মধ্যে সিন্ডিকেট সভায় পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেওয়া ও আমাদের জানানো, বিগত পরীক্ষাগুলোর ফলাফল অতি দ্রুত প্রকাশ করা।

মানববন্ধন শেষে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর তিনদফা দাবি উল্লেখ করে স্মারকলিপি দেন। এ সময় উপাচার্যের হয়ে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ।

(ঢাকাটাইমস/২৭জানুয়ারি/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :