কুমির কন্যার সঙ্গে ম্যাক্সিকান মেয়রের বিয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০১ জুলাই ২০২২, ১৬:৩৮ | প্রকাশিত : ০১ জুলাই ২০২২, ১৬:৩৫
ছবি- ডেইলি মেইল

এক বর্ণাঢ্য বিয়ের আয়োজন। ঐতিহ্যবাহী বাদ্য-বাজনা, নাচ-গানের সঙ্গে এক জমকালো সেই বিয়ের অনুষ্ঠান। মেয়রের বিয়ে বলে কথা। আয়োজনের কমতি থাকবে কেন? সবকিছ ঠিক থাকলেও বিয়ের কনে দেখে হতভম্ব বিশ্ব। কনের সাজে বিয়ের আসরে এলো মাংসাশী প্রাণী কুমির কন্যা!

ঘটনাটি ঘটেছে মেক্সিকোর ওজাকা প্রদেশে। স্থানীয় গ্রাম সান পেড্রো হুয়ামেলুলার মেয়র ভিক্টর হুগো সোসা বৃহস্পতিবার এমন বিয়ের আয়োজন করেন।

বিশ্বের কাছে এটি অদ্ভূত হলেও পুরাতন এ রীতি চলে আসছে ম্যাক্সিকোর ওক্সাকা রাজ্যের চোন্টাল এবং হুয়াভ আদিবাসী সম্প্রদায়ের মধ্যে। এই রীতিকে প্রকৃতির সঙ্গে মানুষের যোগসূত্র স্থাপন বলে মনে করে স্থানীয় আদিবাসীরা। মূলত প্রকৃতির কাছে সমৃদ্ধি প্রার্থনা করাই এ রীতি পালনের মূল উদ্দেশ্য।

মেয়রের গ্রামটিতে মূলত জেলে সম্প্রদায়ের বাস। এ গ্রামের লোকেদের জীবিকা নির্বাহের প্রধান উৎস মাছ ধরা।

মেয়র সোসা বলেন, আমরা প্রকৃতির কাছে পর্যাপ্ত বৃষ্টির জন্য, পর্যাপ্ত খাবারের জন্য চাই যাতে আমাদের নদীতে মাছ আসে বেশি করে।

মেক্সিকোর দক্ষিণে অবস্থিত ওক্সাকা। সেখানকার অনেক গোষ্ঠী ও সম্প্রদায় এখনো শত বছরের পুরনো ভাষা, সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য ধরে রেখেছে।

সাধারণ বিয়ের মতোই এ বিয়েতেও বর এবং কনে সেজে এসেছে। কুমিরটির বয়স ছিল সাত বছর যাকে ছোট্ট রাজকুমারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এদেরকে মাতৃভূমির প্রতিনিধিত্বকারী একটি দেবতা বলে মনে করা হয়। তাদের বিশ্বাস, স্থানীয় নেতার সঙ্গে প্রাণীদের বিয়ের মাধ্যমে ঈশ্বরের সঙ্গে মানুষের একটা ঐশ্বরিক সম্পর্ক স্থাপন হয়।

(ঢাকাটাইমস/১জুলাই/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :