গজারিয়ার প্লাইবোর্ড কারখানার আগুন ১২ ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০২৪, ১১:০৬

প্রায় ১২ ঘণ্টা পর গজারিয়ার প্লাইবোর্ড তৈরির কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে এখনো পুরোপুরি নেভেনি। সম্পূর্ণরূপে আগুন নেভাতে এখনো ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট কাজ করছে।

রবিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হলে প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ১২টি ইউনিটের লাগাতার চেষ্টায় রাত ১২টার পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে কারখানার ভেতরে পাটখড়ি থাকায় কিছু জায়গায় এখনো জ্বলছে আগুন।

সোমবার সকাল ৯টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের গজারিয়া ইউনিটের স্টেশন অফিসার রিফাত মল্লিক এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘রাতভর চেষ্টার পর রাত ১২টার দিকে আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। এখন আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে । তবে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট এখনো কাজ করছে। ভিতরে পাটখড়িসহ দাহ্য পদার্থ থাকায় ওগুলোর মধ্যে এখনো অল্প পরিমাণে আগুন জ্বলছে। সেগুলোর স্তুপ ভেঙে ভেঙে আগুন নেভাতে হচ্ছে।’

তবে আগুনের লেলিহান শিখা এখন আর নেই। তারপরেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আপাতত চারটি ইউনিট কাজ করছে।

রিফাত মল্লিক বলেন, ‘গতকাল রাত ৮টার দিকে যখন ঝড় হয় তখন আমরা এই আগুন নিয়ে খুব শঙ্কিত ছিলাম। ঝড়ে আগুন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। পড়ে আমরা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হয়েছি। আগুনের উৎস সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এখনো উৎস সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও নির্ধারণ করা যায়নি।’

প্রসঙ্গত, রবিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দি ইউনিয়নের জামালদি এলাকায় মেঘনা নদীর তীরে টি কে গ্রুপের প্লাইবোর্ড (সুপারবোর্ড) তৈরির কারখানা সুপার ফরমিকা অ্যান্ড লোমিনেশন (এসএফএলএল) ফ্যাক্টরিতে আগুন লাগে। মুহূর্তেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে ধসে পড়ে গোডাউনের কাঠামো। খবর পেয়ে মুন্সীগঞ্জ-নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা থেকে একে একে ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজে অংশ নেয়। আগুন নেভানোর কাজে ৭ জন আহত হয়। একজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে কারখানাটি পুড়ে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। কারখানার আগুনে ছিটকে পড়া ফুলকিতে পাশে মেঘনা নদীতে রাখা মালবোঝাই তিনটি ট্রালার পুড়ে গেছে।

(ঢাকাটাইমস/২৫মার্চ/প্রতিনিধি/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :