হোয়াইট হাউজের নতুন বাসিন্দা যারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০১৭, ২০:৪৮ | প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারি ২০১৭, ১৭:৪২

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরই যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বারাক ওবামা মিশেল ওবামার আট বছরের সংসার গুটিয়ে নেয়ার পর নিজের পরিবার নিয়ে আজ মার্কিন প্রেসিডেন্টের ঐতিহ্যবাহী বাড়ি হোয়াইট হাউজে উঠবেন নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।  চলুন জেনে নেয়া যাক ট্রাম্প পরিবারের সদস্যদের সম্পর্কে, যারা ট্রাম্প প্রশাসনের নানান পদে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন আগামী চার বছর।

মেলেনিয়া ট্রাম্প: ৪৬ বছর বয়সী মেলেনিয়া ট্রাম্প, ডোনাল্ড ট্রাম্পের তৃতীয় স্ত্রী। স্লোভেনিয়া বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। সাবেক এই মডেল ২০০৫ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ২০০৬ সালে তাদের সন্তান ব্যারনের জন্ম হয়।  

মেলেনিয়া বলেছেন, সাবেক ফার্স্ট লেডি ব্রেটি ফোর্ড বা জ্যাকি কেনেডির মতোই  প্রথাগত হবেন তিনি। 

অনলাইনে উৎপীড়ন ও হয়রানির বিরুদ্ধে কাজ করার পরিকল্পনা করছেন তিনি। ছেলে ব্যারনের শিক্ষাবর্ষ শেষ হওয়া পর্যন্ত তিনি ওয়াশিংটনের পরিবর্তে নিউইয়র্কেই থাকবেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র:  নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী চেক প্রজাতন্ত্রের মডেল ইভানা ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ সন্তান তিনি। জুনিয়র ট্রাম্প বর্তমানে তার ভাই এরিকের পাশাপাশি ট্রাম্প অর্গানাইজেশনের ট্রাস্টি হিসেবে কাজ করছেন। 

সূত্র জানায়, ধারণা করা হচ্ছে, জুনিয়র ট্রাম্প তার বাবার প্রশাসনে তেমন কোনো ভূমিকা রাখবেন না। 

ভেনেসা কে হেডন নামে এক মডেলকে তিনি ২০০৫ সালে বিয়ে করেন। তাদের পাঁচ সন্তান রয়েছে। 

ইভাঙ্কা ট্রাম্প:  ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প। ৩৫ বছর বয়সী ইভাঙ্কা একজন ফ্যাশন উদ্যোক্তা। ওয়াশিংটন ডিসিতে চালু হওয়া ট্রাম্প হোটেলসহ অনেক প্রকল্প তিনি নিজে পরিচালনা করেছেন। রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী জারেদ কুশনারকে বিয়ে করেন ট্রাম্প। তাদের তিন সন্তান রয়েছে।

ইভাঙ্কা গত ৮ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগ পর্যন্ত টানা দুই বছর ধরে তার বাবা ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে প্রচারণা চালিয়েছেন। এমনকী তিনি গর্ভবতী অবস্থায় প্রচারণার কাজ চালিয়ে গেছেন। শ্বেতাঙ্গ নারীদের ভোট পেতে ইভাঙ্কার ভাবমূর্তি কাজে লেগেছে। 

ট্রাম্প প্রশাসনে ইভাঙ্কার ভূমিকা কি হবে তা স্পষ্ট নয়। তবে অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্টের গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শক হিসেবে কাজ করতে পারেন ইভাঙ্কা। 

এরিক ট্রাম্প: ইভানা-ট্রাম্পের কনিষ্ঠ সন্তান ৩৩ বছর বয়সী এরিক। তার ভাইয়ের সঙ্গে গত চার বছর ধরে পারিবারিক ব্যবসা দেখাশুনা করছেন এরিক। তিনি ট্রাম্প অর্গানাইজশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৪ সালে লারা ইউনাস্কাকে বিয়ে করেন এরিক। তাদের কোনো সন্তান নেই।  

জ্যারেড কুশনার:  নিউজার্সিতে বেড়ে ওঠা জ্যারেড কুশনার ইভাঙ্কার স্বামী। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জার্মানির নাৎসি বাহিনী আক্রমণ থেকে বেঁচে যাওয়া হলোকষ্ট সারভাইভারদের একজন ছিলেন তার দাদা। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক এবং নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন তিনি। 

কুশনারের বাবা একজন রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী ছিলেন। করফাঁকির মামলায় তিনি কারাগারে যাওয়ার বাবার ব্যবসার দায়িত্ব নেন কুশনার। তিনি নিউইয়র্ক অবজার্ভার ডেইলির মালিক ও প্রকাশক। তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। 

টিফানি ট্রাম্প: ডোনাল্ডের ট্রাম্পের দ্বিতীয় স্ত্রী অভিনেত্রী ও টিভি ব্যক্তিত্ব মারলা ম্যাপলসের মেয়ে টিফানি। ২৩ বছর বয়সী টিফফানি ট্রাম্প সম্প্রতি পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। পরিবারের অংশ হলেও ট্রাম্প প্রশাসনে তাকেও দেখা যাবে না বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

সূত্র: এনডিটিভি

(ঢাকাটাইমস/২০জানুয়ারি/এসআই)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত