না.গঞ্জে আসামির পক্ষে প্রক্সি দিতে গিয়ে কারাগারে

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ মে ২০১৭, ২১:০১
ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বক্তাবলীতে আগুন দিয়ে বাড়িঘর পোড়ানোর মামলায় প্রধান আসামির পক্ষে প্রক্সি দিয়ে জামিন নিতে যাওয়ায় আব্দুস সালাম (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।
বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট-খ অঞ্চলের বিচারক হুমায়ুন কবিরের আদালতে এ ঘটনা ঘটে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার বক্তাবলীর আকবর নগরে ইটভাটার চাঁদাবাজির ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ছামেদ আলী ও তার লোকজনের সঙ্গে একই এলাকার মাটি ব্যবসায়ী আলী হোসেনের দ্বন্দ্ব ছিল। এর জের ধরে গত ২১ ফেব্রুয়ারি দুপুরে ছমেদ আলী ও তার লোকজন আকববর নগর এলাকায় প্রতিপক্ষ আলী হোসেনের পাঁচটি  বাড়িতে ভাঙচুর এবং পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় আলী হোসেন বাদী হয়ে ছমেদ আলীকে প্রধান আসামি করে ৫৩ আসামির বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেন। এজাহারভুক্ত ৫৩ আসামির মধ্যে ৪৯ জন ইতিমধ্যে আদালত থেকে জামিন নেয়।

বুধবার সকালে আইনজীবীর মাধ্যমে মামলার প্রধান আসামি ছামেদ আলী, আবদুল গনি, আরিফ ও রাজ্জাক আত্মসমর্পণ করেন। এ সময় কোর্ট পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সাখাওয়াত প্রক্সি দিতে আসা আসামিকে কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে কাঁপতে দেখে সন্দেহ হলে তাকে চ্যালেঞ্জ করেন। পরে আসামি আবদুস সালাম নিজেকে ছামেদ আলী বলে দাবি করেন। একপর্যায়ে মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেনকে ডেকে আনার পর বিষয়টি নিশ্চিত হন জামিন নিতে আসা ব্যক্তি ছামেদ আলী নন। তিনি এই মামলার ২২ নম্বর এজাহারভুক্ত আসামি আব্দুস সালাম। তিনি আর্গে এই মামলায় জামিন নিয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. সোহেল আলম আরো জানান, অন্যের প্রক্্ির দিয়ে জামিন নিতে আসার অভিযোগে আব্দুস সালাম নামের এক ব্যক্তিকে আটকের পর কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

এই ঘটনায় কোর্ট পুলিশের এসআই সাখাওয়াত হোসেন বাদী হয়ে আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে সিআর মামলা করেছেন।

(ঢাকাটাইমস/৩মে/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত