শিক্ষার মানোন্নয়নে পদক্ষেপ নিন: দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৩ মে ২০১৭, ১৬:১৪ | প্রকাশিত : ১৩ মে ২০১৭, ১৩:৪২

শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষক ও অভিভাবকদের যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমির সভাপতি আরিফুর রহমান দোলন। তিনি বলেছেন, ঐতিহ্যবাহী এই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য সব ধরণের সুবিধা দেয়া হবে।

শনিবার সকালে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গার কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমির শিক্ষকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এই আহ্বান জানান।

শিক্ষকদের উদ্দেশে দোলন বলেন, ‘আমাদের দেখতে হবে শিক্ষার্থীরা কী করছে। তারা স্কুলে নিয়মিত আসছে কি না। নিয়মিত না আসলে তাদের খোঁজখবর নিতে হবে। টানা তিন দিন ক্লাসে না আসলে তাদের অভিভাবকদের কাছে চিঠি দিতে হবে। অভিভাবক সমাবেশ করে তাদের শিক্ষার গুরুত্ব বোঝাতে হবে। কোনো সমস্যার কারণে তারা ক্লাসে অনুপস্থিত থাকে কি না, সে বিষয়েও জানতে হবে।’

শিক্ষার মানোন্নয়নে করণীয় খুঁজে করার আহ্বান জানিয়ে ‘ঢাকাটাইমস’ ও সাপ্তাহিক ‘এই সময়’ সম্পাদক দোলন বলেন, ‘প্রয়োজনে প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের সংখ্যা বাড়াতে হবে। বিশেষ করে ইংরেজি ও অংকের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের জন্য অতিরিক্ত শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে।’

কাঞ্চন একাডেমির সভাপতি বলেন, ‘বর্তমান সময়ে বিশ্বকে জানতে প্রযুক্তির সদ্ব্যবহার করতে হবে। বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মকে এটা জানতে হবে। কিন্তু ক্লাস চলাকালীন সময় শিক্ষার্থীরা যাতে মোবাইল ব্যবহার করতে না পারে, সে বিষয় নজর রাখতে হবে।

দোলন বলেন, ‘অনেক সময় দেখা যায় শিক্ষক গুরুত্বপূর্ণ ক্লাস নিচ্ছেন। কিন্তু একই সময় শিক্ষার্থীরা মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত থাকে। এটা খুবই দুঃখজনক। এজন্য পরামর্শ থাকবে নবম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মোবাইল ব্যবহার না করতে দেয়ার।’

কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বলেন, ‘এসএসসি পরীক্ষার আগে টেস্ট পরীক্ষায় যেসব শিক্ষার্থী ফেল করবে তাদের কোনোভাবেই কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া যাবে না।’

কাঞ্চন একাডেমির অতীত ঐতিহ্যের কথা তুলে ধরে প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি বলেন, ‘এটি অত্র এলাকার স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান। এখানকার সাবেক শিক্ষার্থীদের মধ্যে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা, বিসিএস ক্যাডার হয়েছেন। এই ঐতিহ্য ধরে রাখতে হবে। যখন এই স্কুলের ফলাফল খারাপ হয়, তখন অভিযোগের তীর আসে আমার দিকে। তাই শিক্ষার মানোন্নয়নের পাশাপাশি পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের জন্য যা যা করণীয় সমন্বিতভাবে তাই করতে হবে।’

স্কুলে সহকারী প্রধান শিক্ষকসহ যেসব পদ খালি আছে দ্রুত সেসব পদে নিয়োগ দেয়ার কথা জানিয়ে ঢাকাটাইমস সম্পাদক বলেন, এই নিয়োগ প্রক্রিয়া হবে স্বচ্ছ। কেউ ঘুষ দিতে চাইলে তাকে সরাসরি পুলিশে দেয়া হবে।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য শেখ শহীদুল ইসলাম শহীদ, আওয়ামী লীগ মনোনীত গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ইনামুল হাসান, প্রধান শিক্ষক মো. জাকির হোসেন, কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমি স্কুলের উপদেষ্টা অমর কুমার দাস, সিনিয়র শিক্ষক মো. নাছির উদ্দিন মিয়া, মো. আইউব হোসেনসহ স্কুলের শিক্ষক ও অভিভাবকরা।

ঢাকাটাইমস/১৩মে/জেআর/বিইউ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজপাট বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত