দল ছাড়লেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার আজিম

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ জুন ২০১৭, ২৩:৪৭

ত্যাগী কর্মীদের অবমূল্যায়ন করে দলীয় গঠনতন্ত্র বিরোধী পকেট কমিটি গঠন করা হয়েছে অভিযোগ এনে দল ছাড়লেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কর্নেল (অব.) এম.আনোয়ারুল আজিম। কুমিল্লা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আজিম কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদস্য পদ থেকেও পদত্যাগ করছেন তিনি। 

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকার একটি ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বেশ কয়েকজন নেতাসহ দল থেকে পদত্যাগের এ ঘোষণা দেন আনোয়ারুল আজিম। 

সংবাদ সম্মেলনে কর্নেল (অব.) এম.আনোয়ারুল আজিম বলেন, ‘দলীয় গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে, দলের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মতামত না নিয়ে কোনো প্রকার সম্মেলন ছাড়াই রাতের অন্ধকারে লাকসাম উপজেলা, পৌরসভা এবং মনোহরগঞ্জ উপজেলা যুবদল-ছাত্রদলের পকেট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। আমি জেনেছি যুবদল ও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা জেলা কমিটির নেতাদের ডেকে এনে এসব কমিটিতে স্বাক্ষর করিয়েছেন। আমি বিষয়গুলো বিএনপির হাইকমান্ডকে বার বার জানিয়েছি। কিন্তু এতে কোনো লাভ হয়নি। আর এসব পকেট কমিটি ঘোষণার পর থেকেই আমি দলের তৃণমূল ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের কাছে বার বার প্রশ্নের মুখে পড়ছি। কিন্তু আমি তাঁদের কোনো উত্তর দিতে পারছি না।’

তিনি আরও বলেন, যারা বিএনপিকে ভালোবেসে আমার কথায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে সাড়া দিয়ে আন্দোলন সংগ্রামে গিয়ে বার বার নির্যাতিত হয়েছে। একের পর এক হামলা আর একাধিক মামলার স্বীকার হয়েছে তারাই আজ পদবঞ্চিত হয়েছে। 

পদত্যাগী এ নেতা বলেন, ‘তৃণমূল ও ত্যাগী কর্মীদের মূল্যায়ন করতে পারে না যেই দল, সেই দলের কোনো পদে থাকার প্রশ্নই উঠে না। আমি বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পদসহ সকল পদ থেকেই পদত্যাগ করছি।’

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া ঢাকাটাইমসকে বলেন, আমিও শুনেছি আজিম ভাই দল থেকে পদত্যাগ করছেন। কিন্তু বিষয়টি আমার কাছে পরিষ্কার নয়।

তিনি বলেন, কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে যুবদল আর ছাত্রদলের। কেন এভাবে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে সেটা যুবদল-ছাত্রদলের নেতারাই ভালো বলতে পারবেন।

এদিকে, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সম্প্রতি ঘোষণা করা এসব কমিটির সভাপতি-সম্পাদকসহ উল্লেখযোগ্য পদে দায়িত্ব পেয়েছেন কেন্দ্রীয় বিএনপির শিল্প বিষয়ক সম্পাদক ও লাকসাম উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল কালাম ওরফে চৈতি কালামের অনুসারীরা। 

কুমিল্লা-৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসনে বিএনপির দলীয় মনোনয়ন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো কর্নেল (অব.) এম.আনোয়ারুল আজিম ও আবুল কালামের মধ্যে। তবে বিএনপির মূলধারার নিয়ন্ত্রণে ছিলো কর্ণেল (অব.) এম.আনোয়ারুল আজিমের হাতেই।

বৃহস্পতিবার বিকেলে এ প্রসঙ্গে জানতে কেন্দ্রীয় বিএনপির শিল্প বিষয়ক সম্পাদক ও লাকসাম উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবুল কালাম ওরফে চৈতি কালামের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

(ঢাকাটাইমস/০৮জুন/প্রতিনিধি/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত