মা হলেন সার্বিয়ার সমকামী প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৪৯ | প্রকাশিত : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৪৭

রক্ষণশীল দেশের প্রথম নারী সমকামী প্রধানমন্ত্রী তিনি। সার্বিয়ার অ্যানা বার্নাবিচের সঙ্গী এ বার এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের এক বিবৃতিতে খবর জানিয়ে বলা হয়েছে, বিশ্বে এই প্রথম কোনো সমকামী রাষ্ট্রনেতার সন্তান হলো।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অ্যানা বার্নাবিচের সঙ্গী মিলিকা ডিজুরডজিক ও নবজাতক ভালো আছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের বরাত দিয়ে জানায়, এই প্রথম কোনো সমকামী প্রধানমন্ত্রী দায়িত্বে থাকা অবস্থায় তার সঙ্গী সন্তানের জন্ম দিলেন।

মিলিকা একজন চিকিৎসক। কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে তিনি সন্তানের জন্ম দেন। দেশটির রাজধানী বেলগ্রেডের একটি সমকামী বারে তাদের দুজনের পরিচয় হয়।

২০১৭ সালের জুন মাসে সার্বিয়ার প্রধানমন্ত্রী হন ৪৩ বছরের অ্যানা। যা শুনে প্রথমে একটু বিস্মিতই হয়েছিল গোটা বিশ্ব। কারণ এ দেশের সংবিধান সমকামী বিয়েকে আইনি স্বীকৃতি দেয় না। সংবিধানে স্পষ্ট উল্লেখ করা রয়েছে, একজন প্রাপ্তবয়স্ক নারী এবং পুরুষই কেবলমাত্র পরস্পরের সঙ্গে বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারেন। সমকামী বিয়ে এ দেশে অবৈধ। সমকামী যুগলরা চাইলে কোনও শিশুকে দত্তকও নিতে পারেন না সার্বিয়ায়। তবে কোনও সমকামী নারী বা পুরুষের সন্তান দত্তক নিতে বাধা নেই। তবে সমকামী প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ রয়েছে সার্বিয়ার এলজিবিটি সম্প্রদায়ের।

তাদের বক্তব্য, নিজে সমকামী হয়েও তাদের অধিকার রক্ষা নিয়ে এত দিন তেমন কিছুই করেননি অ্যানা। ২০১৭ সালের এক গে প্যারেডে তাকে সাংবাদিকেরা জিজ্ঞাসা করেন, দেশে সমকামী বিয়েকে আইনি স্বীকৃতি দেওয়ার কথা তিনি ভাবছেন কি না। সে বারও প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গিয়েছিলেন তিনি।

(ঢাকাটাইমস/২২ফেব্রুয়ারি/এসআই)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :