‘আমি বেঁচে থাকতে কেউ এনআরসি চালু করতে পারবে না’: মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:২৩

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি বা এনআরসির বিরুদ্ধে হুমকি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মোদি সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে মমতা বলেছেন,‘তিনি বেঁচে থাকতে বাংলায় কেউ এনআরসি চালু করতে পারবে না।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় নাগরিক পঞ্জি বা এনআরসির বিরুদ্ধে পশ্চিমবঙ্গের সিঁথির মোড় থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেসের পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন তৃণমূল নেত্রী।

পদযাত্রায় মমতা বলেন,‘এনআরসির নামে আসামে ১৯ লাখ মানুষকে তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। তার মধ্যে বহু হিন্দু, বহু গোর্খা ও বহু মুসলমান রয়েছে। নাগরিকপঞ্জির নামে ভাগাভাগির রাজনীতি চালাচ্ছে ক্ষমতাসীন বিজেপি।’

ক্ষমতাসীন মোদি সরকার আসামের মতো পশ্চিমবঙ্গসহ বিভিন্ন রাজ্যে অবৈধ অনুপ্রবেশকারী শনাক্তে এনআরসি চালু করতে আগ্রহী। বিভিন্ন সময় জাতীয় থেকে রাজ্যের বিভিন্ন নেতারা বাংলায় এনআরসি-এর কথা বারবার বলেছেন।

গত বুধবার বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ কমিটির সভাপতি দিলীপ ঘোষ সাংবাদিকদের বলেছেন,‘ আসামের ধাঁচে পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি চালু হবে। তাতে প্রায় দুই কোটি মানুষের নাম বাদ যাবে। বিদেশি নাগরিকরা এসে রাজ্যসহ দেশের সম্পদ নষ্ট করছে।’

দিলীপ ঘোষ এনআরসি তালিকা নিয়ে মমতার আন্দোলনকে কটাক্ষ করে বলেন,‘মুখ্যমন্ত্রী মমতার একটি পুরোনো অভ্যাস আছে। কিছু হলেই রাস্তায় নেমে পড়েন তিনি। বাড়ি থাকতে পারেন না। সেই অভ্যাস বজায় রাখতে তিনি রাস্তায় নামছেন। ২০২১ সালের (বিধানসভার নির্বাচন) পরে তো তাঁর রাস্তায় নামতে হবে। কিন্তু যতই রাস্তায় নামুক না কেন, এই পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হবেই।’

এই প্রসঙ্গে মমতা বলেন,‘পশ্চিমবঙ্গ থেকে দুই কোটি নাম বাদ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। দুই জনের গায়ে হাত দিয়ে দেখুক। দেশভাগের চক্রান্ত মানব না। আন্দোলনের মধ্য দিয়েই জবাব দেব। বাংলা বিভক্তের চেষ্টা হলে তা রুখে দাঁড়াব। পুলিশ দিয়ে আসামকে চুপ করিয়ে রাখা হয়েছে। বাংলায় তা করতে পারবে না।’

ঢাকাটাইমস/১২সেপ্টেম্বর/আরআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :