১৮ দিন ধরে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ মাদ্রাসাছাত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:০১

‘আপনার মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। আপনার মেয়ের সঙ্গে জ্বিন ছিল, সেই জ্বিন তাকে নিয়ে গেছে। গত ৩১ আগস্ট মাদ্রাসার শিক্ষিকা আফরোজা বেগম ফোন করে আমাকে এই কথা বলেন। আজ ১৮ দিনে আমি আমার মেয়ের হদিস পাচ্ছি না। পুলিশও আমাদের কোনো সাহায্য করছে না।’

বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ক্র্যাব) কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কথাগুলো বলছিলেন নিখোঁজ মাদ্রাসাছাত্রী সাজনিন আক্তার সৌরভীর বাবা শরীফ উল্লা। একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে মা শিল্পী আক্তার পাগলপ্রায়।

সংবাদ সম্মেলনে সৌরভীর মা বলেন, ২০১৫ সালের শুরুর দিকে সৌরভীকে পল্লবীর বাউনিয়াবাদের ব্লক-ডিতে জামিয়া কোরবানিয়া তালিমিয়া মহিলা মাদ্রাসায় রেখে আসি। অসুস্থ হলে, ঈদের ছুটিতে সৌরভীকে বাড়িতে নিয়ে আসতাম। এবারের কোরবানির ঈদের ছুটি হলে ৮ আগস্ট তাকে বাসায় নিয়ে আসি। আবার ২৭ আগস্ট সৌরভীকে মাদ্রাসায় রেখে আসি। গত ৩১ আগস্ট ওই শিক্ষিকা ফোনে বলেন, আপনার মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।’

শিক্ষিকার কাছে খবর পেয়ে মেয়ের বাবাকে পাঠাই। মেয়ের বাবাকে মাদ্রাসায় প্রবেশ করতে না দিয়ে বাইরে থেকে উল্টাপাল্টা কথা শোনানো হয়। একবার বলেন, ‘মেয়ে বের হয়ে গেছে আর ফেরেনি।’ আবার বলেন, ‘তাকে জ্বিন নিয়ে গেছে।’ পাশেই পুরুষ মাদ্রাসা শাখার সহকারী অধ্যক্ষ মাসুম আকবর বলেন, ‘ওই মেয়ের সমস্যা আছে। সে বের হয়ে গেছে।’

এদিকে পুলিশ বলছে, স্কুলছাত্রী উদ্ধারে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহৃত রয়েছে। মাদ্রাসায় গিয়ে শিক্ষকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। পরিবারটি একটি মামলা করেছে।

সৌরভীর মায়ের অভিযোগ, ওই মাদ্রারাসায় নয়টি সিসি ক্যামেরা রয়েছে। সব সময় সচল রয়েছে। আমরা সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে চাইলে তারা বলেন, ৩০ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ফুটেজ নাই। কারণ ওই সময় নাকি সিসি ক্যামেরার তার ছেঁড়া ছিল।

পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, মাদ্রাসায় গিয়ে একটি ডায়েরি উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে লেখা রয়েছে ‘আমি সাকিব নামে একটি ছেলেকে ভালোবাসি। তার সঙ্গে আমি চলে যাব। তোর কাছে এই ডায়েরিটা রাখবি।’

মাদ্রাসার মহিলা শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত আফরোজা বেগম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সৌরভীর সঙ্গে জ্বিন থাকত একথা আমি বলিনি। এটি সৌরভীর বান্ধবী আনিকা বলেছে। আর আনিকাকে সৌরভীই বলেছে যে, তার সঙ্গে সবসময় জ্বিন থাকে। সৌরভীর একটি ডায়েরি তার বান্ধবী আনিকার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ জব্দ করেছে।’

(ঢাকাটাইমস/১৮সেপ্টেম্বর/এসএস/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

নারীমেলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :