যশোরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে মারধরের অভিযোগ

যশোর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর ২০২০, ২০:৩৩

যৌতুকের দাবিতে সাবিনা ইয়াসমিন (৩০) নামে এক গৃহবধূকে মারধর এবং বটি দিয়ে মাথায় কোপ মারার অভিযোগে মামলা হয়েছে। আসামি করা হয়েছে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়িকে।

অভিযুক্তরা হলেন- সদর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর রাজাপুর উত্তরপাড়ার রমজান মোল্লা, তার স্ত্রী জানা বেগম এবং ছেলে ওমর আলী। আর অভিযোগকারী গৃহবধূ সদর উপজেলার কেসমত নওয়াপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের মেয়ে।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ওমর আলীর সাথে সাবিনার ৮ বছর আগে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের দুইটি সন্তান আছে। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে ওমর তার পিতা-মাতার প্ররোচনায় ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছিল। টাকা দিতে না পারায় তাকে নানাভাবে নির্যাতন করত। মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে তার পিতা-মাতা এক লাখ টাকাসহ প্রায় দেড় লাখ টাকার মালামাল দেয়। কিন্তু চাহিদামতো টাকা না পাওয়ায় নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। তিনি নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে যশোর লিগ্যাল এইডে অভিযোগ করেন। সেখানে ওমর আলী মুচলেকা দিয়ে তাকে ঘরে তোলে। কিন্তু কিছুদিন পর ফের নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়।

গত ১১ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তিনি বাড়িতে কাজ করছিলেন। সে সময় অপর দুই আসামির প্ররোচনায় ওমর আলী তার কাছে দুই লাখ টাকা এনে দিতে বলে। তিনি রাজি না হওয়ায় তাকে মারপিট করে। একপর্যায়ে বটি দিয়ে তার মাথায় কোপ মারে। এতে তিনি মারাত্মক জখম হন। পরে তার চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে। পরদিন তার পরিবারের লোকজন তার শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে তাকে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি কিছুটা সুস্থ হয়ে ফের মীমাংসা করতে ব্যর্থ হয়ে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন।

(ঢাকাটাইমস/৩অক্টোবর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :