ভুয়া অনলাইনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৮:১২ | প্রকাশিত : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৮:০৯

ভুয়া অনলাইন নিউজ প্রোটালের বিরুদ্ধে শিগগিরই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তনে অনলাইন জার্নাল ‘রিপোর্টার্স ভয়েস’ উদ্বোধন ও ডিআরইউ সদস্য লেখকদের সম্মাননা-২০২০ প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা জানান মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যেসব অনলাইন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের পরিবর্তে ব্যক্তিস্বার্থে ব্যবহৃত হয়, যেসব অনলাইন গুজবের সঙ্গে যুক্ত, সমাজে অস্থিরতা তৈরি করে, সেগুলোর বিরুদ্ধে আমরা আসছে বছরে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করব।’

অনলাইন নিউজপোর্টাল নিবন্ধন কার্যক্রম এগিয়ে যাওয়ার পর এই ব্যবস্থা শুরু হবে উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এটি যেমন সমাজের চাহিদা, একইভাবে সাংবাদিক সমাজেরও চাহিদা। যে অনলাইন নিউজপোর্টালগুলো সত্যিকার অর্থে সংবাদ পরিবেশনের জন্য কার্যক্রম পরিচালনা না করে ভিন্ন উদ্দেশ্যে কাজ করে, সেগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

হাছান মাহমুদ আরো বলেন, ‘দেখা যায় কেউ একজন অনলাইন পোর্টাল খুলে যাকে-তাকে সাংবাদিকের কার্ড দিয়ে দিল। তিনি আসলে প্রকৃতপক্ষে সাংবাদিক নন, কার্ডটির জন্যই সাংবাদিক সেজেছেন। এগুলো বন্ধ করার জন্য রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সাংবাদিক ফোরামগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। কিছু কিছু সাংবাদিক নামধারীর জন্য পুরো সাংবাদিক সমাজের বদনাম হতে পারে না।’

ডিআরইউর সভাপতি রফিকুল ইসলাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিকুর রহমান এবং ডিআরইউ সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ চৌধুরী বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী জানান, ‘২০০৯ সালে আমরা যখন সরকার গঠন করি তখন বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল ৪০ লাখ। আজ সংখ্যাটি ১১ কোটির বেশি। ১৭ কোটি মানুষের দেশে আজ সাড়ে ১৫ কোটির কাছাকাছি মোবাইল সিম ব্যবহারকারী। এই ব্যাপক পরিবর্তন জননেত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল, দূরদর্শী নেতৃত্বের জন্য সম্ভব হয়েছে।’

ডিআরইউ জার্নাল রিপোর্টার্স ভয়েস উদ্বোধনের পর তথ্যমন্ত্রী ডিআরইউ সদস্য লেখক সম্মাননা স্মারক তুলে দেন। এবার সম্মাননা পান ৩০ জন। সম্মাননা পাওয়া সদস্য লেখকরা হলেন হাবিবুল্লাহ ফাহাদ, মোরসালিন আহমেদ, জাকির হোসেন, মিজান রহমান, এম মামুন হোসেন, রিয়াজ চৌধুরী, সাজেদা পারভীন সাজু, আমীন আল রশীদ, মোতাহার হোসেন, প্রণব মজুমদার, আমিরুল মোমেনীন মানিক, রাকিবুল ইসলাম মুকুল, আবু আলী, মিজান মালিক, মুস্তাফিজুর রহমান নাহিদ, মো. শফিউল্লাহ সুমন, তরিকুল ইসলাম মাসুম, আবু হেনা ইমরুল কায়েস, মাইদুর রহমান রুবেল, মাসুম মোল্লা, সায়ীদ আবদুল মালিক, দীপন নন্দী, হক ফারুক আহমেদ, সেলিনা শিউলী, চপল বাশার, আশীষ কুমার দে, জামশেদ নাজির, শামসুজ্জামান শামস, ইন্দ্রজিৎ সরকার ও আহমেদ মুশফিকা নাজনীন।

(ঢাকাটাইমস/২৬নভেম্বর/কারই/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

গণমাধ্যম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :