কালিয়াকৈরে শিক্ষক-শিক্ষার্থীকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ মার্চ ২০২১, ২২:০০

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার পূর্বচান্দরা ছাপড়া মসজিদ এলাকায় মাদ্রাসাশিক্ষক ও স্কুলছাত্রীকে অবৈধ শারীরিক সম্পর্কের সময় আটক করেছে এলাকাবাসী। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এলাকার পূর্ব চান্দরা ইসলামিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আটক শিক্ষকের নাম আশরাফুল ইসলাম(২৫)। পাশের এক স্কুলশিক্ষার্থীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কের সময় শিক্ষকের শয়ন কক্ষে তাদের আটক করা হয়। পরে শত শত গ্রামবাসী সেখানে জড়ো হয়ে বিচার দাবি করেন। কিন্তু ওই মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মহিবুল্লাহ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে উপস্থিত লোকজনকে ধমক দিয়ে সরিয়ে দেন।

পরে মেয়ের বাবাকে খবর দিয়ে মাদ্রাসায় নিয়ে আনেন। এসময় তার মাদ্রাসার শিক্ষক আশরাফুল ইসলামের অভিভাবককে ডেকে নিয়ে অফিস কক্ষে শালিস বসান। সেখানে মাদ্রাসার শিক্ষক ও কয়েকজন হিতাকাঙ্ক্ষী ছাড়া গ্রামের কাউকে ঢুকতে না দিয়ে মেয়ের বাবাকে আট হাজার টাকা উল্টো জরিমানা করেন পরিচালক মহিবুল্লাহ।

পরে অভিযুক্ত মাদ্রাসা শিক্ষক আশরাফুল ইসলামকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক আশরাফুল ইসলামের একটি মোবাইল ফোন কেড়ে নেন বলে অভিযোগ উঠে।

এ ঘটনা থানা পর্যন্ত গড়াবে জেনে মহিবুল্লাহ রাতেই সুকৌশলে মেয়েকে সিরাজগঞ্জ জেলার গ্রামের বাড়িতে এবং অভিযুক্ত শিক্ষককে ময়মনসিংহের গ্রামের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

এ ঘটনাকে কেন্দ্রে করে অধিকাংশ গ্রামবাসী ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ঘটনায় মেয়ের বাবা বলেন, আমরা গরীব মানুষ। মেয়ের এ ঘটনার বিচার চাইলেও পাবো না। উল্টো আমাকেই এ ঘটনায় রাতেই আট হাজার টাকা জরিমানা দিতে হয়েছে।

পূর্ব চান্দরা ইসলামিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার পরিচালক মহিবুল্লাহ জানান, এখানে তেমন কোনো বড় ঘটনা ঘটেনি। যা ঘটেছে তা মীমাংসা করা হয়েছে। আপনারা পত্রিকায় লিখলে আল্লাহর কাছে ঠেকা থাকবেন।

কালিয়াকৈর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব চক্রবর্তীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এরকম কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/৫মার্চ/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :