৭ মার্চের ভাষণেই রয়েছে স্বাধীনতার ঘোষণা: কনক বড়ুয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ মার্চ ২০২১, ২২:০৩

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণেই স্বাধীনতার ঘোষণা রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া।

রবিবার ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ইতিহাস ও প্রেক্ষপট তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ মুক্তির লক্ষ্যে জেগে ওঠার দিন। জাতিসংঘের ইউনেস্কোর ওয়ার্ল্ড ডকুমেন্টারি হেরিটেজের অংশ হিসেবে অর্থাৎ বিশ্ব ঐতিহ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ সাড়ে সাত কোটি বাঙালিকে মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে মন্ত্রমুগ্ধের মতো উদ্বুদ্ধ করেছিল।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণ ৭ই মার্চ উপলক্ষে রবিবার সকালে বিএসএমএমইউয়ে এসব কথা বলেন। এরআগে তিনি বি ব্লকের নীচে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

বিএসএমএমইউর উপাচার্য বলেন, বিশ্বের ইতিহাসে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের মতো ভাষণ আর দ্বিতীয়টি নেই। তিনি বলেন, ঐতিহাসিক ৭ই মার্চে বঙ্গবন্ধুর ভাষণেই রয়েছে স্বাধীনতার ঘোষণা। আর ২৬ মার্চ ছিল এর আনুষ্ঠানিকতা। বন্দুকের নল ও তাক করা কামানের মুখের সামনে দাঁড়িয়েও ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ, রবিবার রেসকোর্স ময়দানে লাখ লাখ জনতার সম্মুখে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, “এবারে সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, ‘এবারে সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’।

কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ইতিহাস বিকৃতি, হত্যার ষড়যন্ত্র আজও থেমে নেই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে। স্বাধীনতার প্রকৃত ইতিহাস বিকৃত করার চেষ্টা হচ্ছে। এ অবস্থায় সকলে ঐক্যবদ্ধ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে কমনওয়েলথের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারি মোকাবেলায় নেতৃত্ব দেয়া শীর্ষ তিন অনুপ্রেরণাদায়ী নারীর একজন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান।

কনক কান্তি বড়ুয়ার নেতৃত্বে উপ-উপাচার্যবৃন্দ, কোষাধ্যক্ষ, ডিনবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, প্রক্টর, পরিচালকবৃন্দ, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, অফিস প্রধানগণ, শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্রছাত্রী, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ও কর্মচারীবৃন্দ পুষ্পস্তবক অপর্ণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

ঢাকাটাইমস/০৭মার্চ/এএ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :