‘বহিরাগতদের’ বক্তব্য ভোটের পরিবেশ উত্তপ্ত করছে: তৈমূর

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ১১:৫০

নারায়ণগঞ্জের বাইরে থেকে আসা বহিরাগতদের বিভিন্ন বক্তব্য সিটি নির্বাচনের পরিবেশকে ঘোলাটে ও উত্তপ্ত করছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার।

শুক্রবার সকালে নারায়ণগঞ্জের মিশনপাড়ায় সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার, হুমকি ও চাপ প্রয়োগের অভিযোগও করেন এই মেয়র প্রার্থী।

তৈমূর আলম বলেন, নারায়ণগঞ্জের বহিরাগতদের বক্তব্য নির্বাচনকে উত্তপ্ত করে তুলেছে। তারা ঢাকা থেকে এসে এসব বক্তব্য দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর কবির নানক হুমকি দিয়ে বলেছিলেন, ঘুঘু দেখেছো ফাঁদ দেখনি। এখন আমি তার কথার মর্ম বুঝতে পারছি। আমার নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। সক্রিয় নেতাকর্মীদের বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। নগরীর হোটেলগুলোতে আওয়ামী লীগ বহিরাগতদের রাখা হয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সার্কিট হাউজ ব্যবহার করছে তারা।

মানবাধিকার সংস্থাকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণের অনুরোধ জানিয়ে এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আওয়ামী লীগ নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে। বিভিন্ন এমপিরা নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে। আমাকে বারবার হুমকি দিচ্ছে। আন্তর্জাতিক মিডিয়া, মানবাধিকার সংস্থাকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষ সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কিত। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দিলেও কোনো প্রতিকার হয়নি। বরং অভিযোগের পরে আরও হয়রানি বেড়েছে। এতকিছুর পরও নির্বাচন কমিশনে আস্থা রাখছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

তৈমূর আলম আরও জানান, নারায়ণগঞ্জের মানুষের দুর্ভোগ দূর করার জন্য নির্বাচনে দাঁড়িয়েছি। নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর গুজব ছড়াচ্ছে একটি মহল। নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য আসিনি। যেকোনো পরিস্থিতিতে নির্বাচনে থাকবো। নারায়ণগঞ্জে কোন বিশৃঙ্খলা হোক এটা আমি চাই না। জনগণ যে রায় দিবে তা মেনে নেয়া হবে।

আগামী রবিবার নারায়ণগঞ্জ সিটির ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তৃতীয় এই নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন সেলিনা হায়াৎ আইভী। অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম ছাড়াও আরও পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ৩২ জন।

প্রায় ২০ লাখ মানুষের এ সিটিতে ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৭ জন। নারী ভোটার-২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১৯ আর পুরুষ ভোটার-২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৪ জন।

ঢাকাটাইমস/১৪জানুয়ারি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :