হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল কর্মকর্তার মৃত্যু ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ মে ২০২২, ১৮:২৮

রাজধানীর পাঁচতারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল থেকে হোটেলটির অতিরিক্ত ম্যানেজার সুব্রত সাহার রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। বুধবার রাতে রাজধানীর রমনা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছে তার পরিবার।

এদিকে সুব্রতর মৃত্যু রহস্য এখনো উন্মোচন হয়নি। হোটেল কর্তপক্ষ বলছে, সুব্রত ভবনের নবম তলা থেকে ঝাঁপিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবে পরিবারের দাবি, সুব্রতকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে। অন্যদিকে পুলিশ বলছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাবে না। সিসিটিভি ফুটেজ ও অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করে সেগুলো বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

বুধবার দুপুরে হোটেলের দ্বিতীয়তলা ছাদ থেকে সুব্রতর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ‍পরে ময়নাতদন্তের জন্য সন্ধ্যার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বেলা ২ টার দিকে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান নিহত সুব্রত সাহার ভাতিজা জয়ন্ত সাহা।

জয়ন্ত সাহা ঢাকাটাইমসকে বলেন, লাশ নিয়ে গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হয়েছি। ওখানে ভাই সুব্রত সাহার সৎকার করা হবে। আর এই ঘটনায় গতকাল রাতেই সুব্রত সাহার বড় ভাই স্বপন সাহা বাদী হয়ে অজ্ঞতনামা আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন।

তিনি বলেন, গতকাল মরদেহ উদ্ধারের পর রমনা থানা পুলিশ, ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন এবং পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ঘটনাস্থলে আলামত সংগ্রহ করেছে।

সুব্রত সাহা প্রায় ২২ বছর ধরে হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। হোটেলটির কর্মীদের সঙ্গে আলাপে জানা গেছে, সুব্রত প্রতিদিনের মতো বুধবার সকালে কাজে আসেন এবং নবম তলায় ডিউটিরত ছিলেন। তবে কীভাবে সেখান থেকে পড়ে মারা গেলেন সেটা তারা জানেন না। তবে তাদের ধারণা, সুব্রত নবম তলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে, এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা। তার আগে কিছুই বলা যচ্ছে না।

তিনি বলেন, ডিবির টিম কিছু সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করেছে সেগুলি বিশ্লেষণ করা হচ্ছে। এছাড়া অন্যান্য তথ্যও সংগ্রহ করা হচ্ছে।

স্বামী সুব্রত সাহার আত্মহত্যা করার মতো কোনো ঘটনা গত কয়েকদিনে ঘটেনি দাবি করে স্ত্রী নুপুর সাহা বলেন, সুব্রতকে হত্যা করে মরদেহ হোটেলের লবিতে ফেলে রাখা হয়েছে। তিনি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবি করেন।

নিহত সুব্রত ধানমন্ডির সেন্ট্রাল রোডের ভাড়া বাসায় পরিবার নিয়ে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর সদরে। একমাত্র মেয়ে আজিমপুর অগ্রণী স্কুলের নবম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। এছাড়া ২০০০ হাজার সালের জুন থেকে কর্মরত আছেন সুব্রত সাহা। তিনি বর্তমানে অতিরিক্ত ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ সার্ভিস লিমিটেড (বিএসএল) শাখার কর্মী।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে রমনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম। তিনি ঢাকাটাইমসকে বলেন, পাঁচতারকা হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের অতিরিক্ত ম্যানেজার সুব্রত সাহার মৃত্যুর ঘটনায় রাতেই একটি হত্যা মামলা করেছে তার বড় ভাই স্বপন সাহা।

ঢাকাটাইমস/২৬মে/এএইচ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজধানী এর সর্বশেষ

বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউরোসার্জনসের নতুন সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন

ঢাবি ছাত্রলীগের দুই নেতার বিরুদ্ধে চাঁদা দাবিতে লেগুনা ভাঙচুরের অভিযোগ

জঙ্গিমুক্ত দেশ চায় ওসি সালাহ উদ্দিনের পরিবার

জঙ্গি দমন করতে না পারলে পদ্মা সেতু-মেট্রোরেল হতো না: ডিএমপি কমিশনার

শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে ‘দীপ্ত শপথে’, ভাস্কর্যটি কোথায়, কাদের স্মরণে?

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু, কমলাপুরে মধ্যরাত থেকে লাইনে মানুষ

ভুল স্বীকারে সংসার, সেই ভুলেই সব শেষ

শনিবার থেকে ড্রোন দিয়ে মশার উৎসস্থল খুঁজবে ডিএনসিসি

‘খাদ্যে বিষক্রিয়ায় বিশ্বব্যাপী বছরে মারা যায় সাড়ে ৪ লাখ মানুষ’

বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে পুরস্কৃত ঢাকা ওয়াসা

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :