মুফতি হান্নানের ফাঁসিদণ্ড: কাশিমপুরে নিরাপত্তা জোরদার

গাজীপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১১ এপ্রিল ২০১৭, ২২:৪৮

জঙ্গিনেতা মুফতি আব্দুল হান্নান ও তার সহযোগীর ফাঁসির দণ্ড ঘিরে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। যেকোনো সময় দণ্ড কার্যকর হতে পারে।

মঙ্গলবার এই দুই জঙ্গির আত্মীয়স্বজনকে কারাগারে গিয়ে তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য বলা হয়েছিল। তবে তাদের কেউ কারাগারে যায়নি বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। এই কারাগারে আছেন মুফতি হান্নান ও তার সহযোগী বিপুল।
ইতিমধ্যে জেলগেটে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত কারাগার এলাকায় লোকজনের চলাছলে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়নি।

কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার মিজানুর রহমান বলেন, ‘সোমবার বেলা একটার দিকে মুফতি হান্নান ও তার সহযোগীর প্রাণভিক্ষা আবেদন নাকচের চিঠি কারাগারে এসে পৌঁছায়। এরপর নিয়ম মাফিক তাদের যেকোন সময় ফাঁসি কার্যকর করা হতে পারে। এ জন্য ওই দুই জঙ্গির আত্মীয়স্বজনকে শেষ দেখা করার জন্য বলা হয়েছে। তবে মঙ্গলবার দুুপর পর্যন্ত কেউ তাদের সঙ্গে দেখা করতে আসেননি।’

বিকেলে কারাগার এলাকা পরিদর্শন করেন গাজীপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ। এ সময় তিনি বলেন, ‘মুফতি হান্নান ও তার সহযোগীর ফাঁসির রায় কার্যকর করা নিয়ে আমরা প্রস্তুত। যেকোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ কারাগার এলাকায় কাজ করছে। এ ছাড়া গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে জঙ্গিবিরোধী অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।’

কারাগার সূত্র জানায়, মুফতি হান্নান ও বিপুলের ফাঁসি কার্যকরে সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে কারা প্রশাসন।  এরই মধ্যে মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফাঁসি কার্যকর করার জন্য ম্যানিলা রশি, মৃত্যুকূপ এবং জল্লাদ রাজুকে প্রস্তুত করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতির প্রাণভিক্ষা নাকচের চিঠির সঙ্গে ফাঁসি কার্যকরে সরকারি নির্দেশনাও এসেছে বলে জানা গেছে। তাই এই দুই জঙ্গির ফাঁসি যেকোনো সময় কার্যকর করা হতে পারে।

ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা চালিয়ে তিনজনকে হত্যার মামলায় মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। এরপর আপিল ও রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন নাকচ হয়ে যাওয়ার পর অপরাধ স্বীকার করে রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেছিল দুই জঙ্গি। গত ২৭ মার্চ কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেছিলেন তারা। এরই মধ্যে ওই আবেদন নাকচ করেছেন রাষ্ট্রপতি।

(ঢাকাটাইমস/১১এপ্রিল/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত