শারলিন-নিশোর ঈদের বিশেষ টেলিফিল্ম ‘ওয়াদা’

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ জুন ২০১৭, ১৫:২৭

পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরে একুশে টেলিভিশন দর্শকদের জন্য নিয়ে আসছে সাতদিনব্যাপি বর্ণাঢ্য ঈদ আয়োজন। এই আয়োজনের প্রতিদিনই থাকছে একটি করে টেলিফিল্ম। এরই ধারাবাহিকতায় ঈদের চতুর্থদিন সকাল ১১টায় প্রচার হবে ঈদের বিশেষ টেলিফিল্ম ‘ওয়াদা’। মোঃ মেহেদী হাসান জনি’র রচনা এবং পরিচালনায় টেলিফিল্মটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো, শারলিন ফারজানা, মুনিরা মিঠু, বাসার বাপ্পি, উজ্জ্বল চৌধুরী, সুমনসহ আরও অনেকে। 

কাহিনীতে দেখা যাবে আয়ান মাস্টার্সে পড়–য়া একটি ছেলে....নিজের লেখা পড়াটা কন্টিনিউ করতে একটা ড্রাইভারের চাকরির জন্য পারি জমায় ঢাকা শহরে। চাকরিটা কনফার্ম করেই ঢাকায় পা রাখে আয়ান এবং সরাসরি বসের বাসায় থাকারো সুযোগ মিলে তার। এই চাকরি পেছনে আরো একটি বড় সত্য লুকিয়ে ছিলো আর তা হচ্ছে মায়া। মায়া এই বাসার মালিকের ছোট বোন মা ভাই আর বাসার এক দাড়োয়ানকে নিয়েই ছিলো তার পুরো পরিবার।

মায়া আয়ানকে আগে থেকেই চিনতো....খুব ভাল প্রেমের সম্পর্ক ছিলো তাদের দুজনার মধ্যে। কিন্তু আয়ান তার বাসায় আসার পর থেকে তাকে যেন মায়া চিনছেই না বরং আরো ড্রাইভার ড্রাইভার বলে ডাকছে। বিষয়টা আয়ানের তেমন সহ্য হয় না। একবার ভেবেও ছিলো যে চলে যাবে...তারপরও সব কিছু সহ্য করে থেকেই গেলো সেখানে। একদিন প্রচন্ড আকাড়ে মায়ার কাছে অপমান সহ্য করতে হয় আয়ানের সে একা একা একটা কোনে যেয়ে মন খারাপ করে বসে ছিলো। তার কিছুক্ষণ পর সব কিছু ভেঙ্গে দিয়ে নিজের সম্পর্ককে জোড়া লাগিয়ে নেয় মায়া। এমন করার কারণ হিসেবে বলে সে আসলে আয়ানকে পরীক্ষা করছিলো। দূরের আয়ান আর কাছের আয়ানের মধ্যে পার্থক্য খুঁজতে ছিলো। শুরু হলো দুজনার মধ্যে প্রেম প্রেম খেলা। কিন্তু প্রতিটা মূহূর্তে যেন ভয় পাচ্ছিলো আয়ান।

বেশ কয়েকবার বেচেঁ গেছে ধরা খাবার হাত থেকে দুজন। একদিন সত্যি সত্যি ধরা খেয়ে যায় আয়ান আর মায়া তার মায়ের কাছে। এর পেছনে বড় হাত রয়েছে দাড়োয়ানের।

এমনই গল্প নিয়ে নাটকটি এগিয়ে যায়।

ঢাকাটাইমস/১৬জুন/এমইউ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত