নৌকা নিয়ে ১৬ দিনের আলোকচিত্র প্রদর্শনী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:১৬

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘বাংলাদেশের নৌকা’ শিরোনামে এম এ তাহেরের একক আলোকচিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়েছে। শনিবার বিকালে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। এটি চলবে ১৬ দিন।  

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-অর-রশীদ, ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, নাট্যব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার এবং বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান চিত্রশিল্পী হাসেম খান।
১ ডিসেম্বর থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রদর্শনী চলবে। এতে স্থান পেয়েছে তিন শতাধিক স্থির চিত্র। বিভিন্ন সময়ে আলোকচিত্র শিল্পী এম এ তাহেরের তোলা শুধু নৌকার ছবি নিয়ে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। প্রদর্শনীর মাধ্যমে দর্শনার্থীরা একটি কক্ষের মধ্যেই পরিচিত হতে পারবেন দেশের বিভিন্ন জেলা, উপজেলায় চলাচলকারী নৌকার সঙ্গে। বিলুপ্ত অনেক নৌকার দেখাও মিলবে এই প্রদর্শনীতে। ডিঙি নৌকা, মাছ ধরার নৌকা, যাত্রী পারাপারের নৌকা, নৌকার হাট, তাল গাছের খোলের নৌকা, নদী-সমুদ্রের জলের সাথে দুলে বেড়ানো বিপুল পরিমাণ নৌকার সাথে উঠে এসেছে এম এ তাহেরের অক্লান্ত চেষ্টায়।

প্রদর্শনী উদ্বোধনের আগে আলোকচিত্রি এম এ তাহেরকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা।

অধ্যাপক হারুন-অর-রশীদ বলেন, ‘আমাদের চলাচলের বাহন শুধু নৌকা তা নয়। আজকের যে বিজয় দিবস তার পেছনে আছে নৌকা। ১৯৫৪ সাল যুক্তফ্রন্টের নৌকা। তাদের প্রতীক ছিল নৌকা। তৎকালীন যে শাসকরা তাদের বিরুদ্ধে জনগণের যে জাগরণ ছিল তা ছিল নৌকা।’

হাসেম খান বলেন, ‘আমি যে গ্রাম থেকে এসেছি সেখানে নদী ছিল। আমাদের নৌকা ছিল। বছরে ছয় মাস নদীতে পানি থাকত। প্রতি বাড়িতে নৌকা থাকত, একটা-দুইটা-তিনটা করে। আমরা নৌকায় চলাচল করতাম। আজ আমি শহরে বাস করি। আমাদের এই নৌকা নিয়ে অনেক স্মৃতি।’

(ঢাকাটাইমস/০১ডিসেম্বর/কারই/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফিচার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :