পপিকে ‘ঠকিয়েছেন’ নির্মাতা, মামলার হুমকি

বিনোদন প্রতিবেদক
| আপডেট : ১৮ জুন ২০১৯, ১২:২৭ | প্রকাশিত : ১৮ জুন ২০১৯, ১২:২১
ছবিতে বামে চিত্রনায়িকা পপি এবং ডানে পরিচালক কামরুজ্জামান কামু

‘দি ডিরেক্টর’ ছবির পরিচালক কামরুজ্জামান কামুর ওপর ক্ষেপেছেন চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। এই ছবির মূল চরিত্রে ছিলেন ‘কুলি’ খ্যাত অভিনেত্রী পপি। যেটি পরিচালক সম্প্রতি একটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দিয়েছেন। কিন্তু এটি কোনো ভাবেই চলচ্চিত্র নয় বলে দাবি করেছেন পপি। নায়িকা হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার দিন থেকে শুরু করে শুটিং চলাকালীন সময়েও এটাকে তিনি টেলিফিল্ম হিসেবে জানেন।  

তাই সেটিকে চলচ্চিত্র হিসেবে মুক্তি দেয়ায় আপত্তি তুলেছেন নায়িকা পপি। বিভিন্ন গণমাধ্যমে তিনি অভিযোগ করে বলেছেন, ‘একটা টেলিফিল্ম কীভাবে চলচ্চিত্র হয়? আমি জানতাম কামু ভাই টেলিফিল্ম নির্মাণ করছেন। সেই অনুযায়ীই আমাকে পারিশ্রমিক দেয়া হয়েছিল। এটা যদি চলচ্চিত্রই হবে, তাহলে তো আমাকে সে অনুযায়ী পারিশ্রমিক দেয়ার কথা। তাহলে কেন আমাকে ঠকানো হলো?’

নায়িকা আরও বলেন, ‘বিষয়টি আমি অবশ্যই আইনি ভাবে লড়বো। যে কেউ এসে আমাকে মিস ইউজ করে আমার দর্শকদের ঠকাবে, এটা আমি কখনোই মেনে নেবো না। আমি যদি সিনেমার প্রধান চরিত্রই হতাম তাহলে আমাকে দিয়ে মাত্র দুই দিন কেন শুটিং করানো হলো? আমি জানি না বিশ্বের কোথাও কোনো সিনেমায় একজন মেইন আর্টিস্ট মাত্র দুই দিন শুটিং করে কিনা!’ এ ব্যাপারে মামলা করার কথা বলেন পপি।

তবে নায়িকার এই হুমকিতে ভীত নন ‘দি ডিরেক্টর’-এর পরিচালক কামরুজ্জামান কামু। তিনিও পাল্টা মামলা করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। পপির মামলার হুমকি বিষয়ে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘আগে মামলা করুক তারপর দেখা যাবে। সেটা মোকাবিলা করার জন্য যা যা করতে হয় করবো। পপি যেটা করতে চাচ্ছেন সেটা তো আসলে মানহানি। সে মামলা করলে আমিও মানহানি মামলার পথে হাটবো। আপাতত আমি আমার পরবর্তী কাজ নিয়ে পরিকল্পনা করছি।’

প্রসঙ্গত, কামরুজ্জামান কামু পরিচালিত ‘দি ডিরেক্টর’ গত ৫ জুন ঈদ উপলক্ষে সান বিডিটিউব নামে একটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পায়। অথচ এই ছবির নির্মাণ শেষ হয়েছিল ২০১৩ সালে। এরপর দীর্ঘদিন পড়েছিল সেন্সর বোর্ডে। কিন্তু ছাড়পত্র পায়নি। নানা অভিযোগে সে সময় ছবিটির মুক্তি আটকে দেয়া হয়। ছবিটির ছাড়পত্রের ব্যাপারে রাজপথে আন্দোলন পর্যন্ত করেছেন পরিচালক কামু। অবশেষে ২০১৫ সালে সেন্সর পায় ‘দি ডিরেক্টর’।

কিন্তু ওই বছরও উপযুক্ত পরিবেশক না পাওয়ায় রুপালি পর্দায় উঠেনি ছবিটি। ‘দি ডিরেক্টর’-এর মুক্তির জন্য নানা জায়গায় ধর্ণা দিয়েছেন পরিচালক কামু। কিন্তু তার স্বল্প বাজেটের এই ছবি মুক্তি দিতে কেউই আগ্রহ দেখাননি। বাধ্য হয়ে তাই ছবির মুক্তির জন্য ইউটিউবকেই বেছে নেন পরিচালক। তবে সম্প্রতি ‘দি ডিরেক্টর’কে চলচ্চিত্র হিসেবে মুক্তি দেয়ায় গোল বেধেছে নায়িকা ও পরিচালকের মধ্যে। এখন এই জল কতদূর গড়ায় সেটাই দেখার।

ঢাকাটাইমস/১৮ জুন/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :