উত্তরায় বন্ধ হচ্ছে রিকশা-লেগুনা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৯ জুন ২০১৯, ২১:১৩ | প্রকাশিত : ১৯ জুন ২০১৯, ২১:০৪

রাজধানীর উত্তরায় সাতটি এভিনিউতে চলাচলকারী সাধারণ রিকশা ও লেগুনা বন্ধ করে দেয়া হবে। প্রতিটি সেক্টরে কেবল নির্ধারিত পোশাকধারী চালকরাই রিকশা চালাতে পারবেন। উত্তরায় চালু হওয়া বিআরটিসি চক্রাকার বাস সার্ভিসের মানোন্নয়নে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

রবিবার রাজধানীর উত্তরায় বাংলাদেশ ক্লাবে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এ তথ্য জানান ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। উত্তরায় বিআরটিসি চক্রাকার বাস সার্ভিসের মানোন্নয়নে লক্ষ্যে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

সভাপতি বক্তব্যে মেয়র বলেন, ‘উত্তরা এলাকায় বিআরটিসি বাসসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে সাতটি এভিনিউতে রিকশা-লেগুনা বন্ধ করা হবে। প্রতিটি সেক্টরে কেবলমাত্র লাইসেন্সধারী নির্দিষ্ট ইউনিফরম পরা রিকশাচালকরা রিকশা চালাতে পারবে।’

বনানীতে চলমান ঊর্ধ্বমূখী গাড়ি পার্কিং সেবা উত্তরাতেও করা হতে পারে বলে জানান ডিএনসিসি মেয়র। বলেন, ‘বনানীতে ঊর্ধ্বমূখী গাড়ি পার্কিংয়ের কাজ চলতি বছরের মধ্যে শুরু হবে। জায়গা পাওয়া গেলে উত্তরাতেও এ ধরনের পার্কিং ব্যবস্থা চালু করা হবে।’

নাগরিকদের তথ্য জানাতে এবং অভিযোগ জানতে হেল্পলাইন চালু হচ্ছে বলে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, ‘আগামী এক মাসের মধ্যে নাগরিকগণ ডিএনসিসির সেবা সংক্রান্ত যে কোনো তথ্য, অভিযোগ ইত্যাদি ৩৩৩ নম্বরের মাধ্যমে জানাতে পারবেন। ‘নগর’ অ্যাপও অল্প সময়ের মধ্যে চালু করা হবে।’
ডিএনসিসিতে অন্তর্ভূক্ত নতুন ১৮টি ওয়ার্ডের উন্নয়নের জন্য চার হাজার ২ শত কোটি টাকা একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে বলে তিনি জানান।
এছাড়া ইতোমদ্যে এ সকল ওয়ার্ডের প্রতিটির জন্য ডিএনসিসির তহবিল থেকে ২ কোটি ২৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে মেয়র জানান।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য সাহারা খাতুন।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবদুল হাই, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফসার উদ্দিন খান, স্থানীয় আওয়ামী লীগ, এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মী ও বিভিন্ন সোসাইটির প্রতিনিধিরা।

ঢাকাটাইমস/১৯জুন/কারই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :