জামালপুরে ফটোসাংবাদিক কানু আর নেই

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ০৯ জানুয়ারি ২০২০, ২২:৩৩

জামালপুরের প্রখ্যাত ফটোসাংবাদিক অজিত কুমার সোম কানু আর নেই। বুধবার বিকাল ৫টার দিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ৮০ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়। প্রবীণ এই সাংবাদিক দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

সাংবাদিক অজিত কুমার সোম কানু ১৯৪০ সালের ১৪ আগস্ট শহরের আমলাপাড়ার এক সম্ভ্রান্ত হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা স্বর্গীয় দেবেন্দ্র কুমার সোম।

তার পরিবারটি ছিল পুরোপুরি একটি শিল্পী পরিবার। কানু’দার কণিষ্ঠ ভাই বীরেন সোম দেশের একজন প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী। তার ছেলে বিশ্বজিত সোম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে বিএফএ ডিগ্রি নিয়েছেন। চিত্রশিল্পী বিশ্বজিত সোম বর্তমানে সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনিও ইতোমধ্যে তার কাজের মাধ্যমে সুনাম কুড়িয়েছেন।

জামালপুরবাসীর কাছে অজিত সোম কানু পরিচিত ছিলেন কানু’দা নামে। ১৯৫৬ সালে মেট্টিক পাস করার ২ বছর আগে ১৯৫৪ সালে স্কুলে পড়ার সময়েই শখের বশে ক্যামেরা হাতে তুলে নেন কানু’দা। ১৯৬২ সালে ইত্তেফাকে ছাপা হওয়া ‘ঝরাপাতার গান’ নামে কানু’দার একটি ফটোফিচার ব্যাপক আলোড়ন তুলে। চৈত্রমাসে পাতা ঝরে যাওয়া এক পত্র পল্লবহীন শীর্ণ এক বটবৃক্ষের ছবি। ‘ঝরাপাতার গান’ নামে আবেগময় ধূসর ক্যাপশনে ছাপা হয় ইত্তেফাকে কানু’দার নামে। ছবির ক্যাপশন লিখেছিলেন প্রখ্যাত সাংবাদিক আব্দুল গাফফার চৌধুরী নিজে। ইত্তেফাক ছাড়াও আজাদ, মিল্লাত, সংবাদে কানু’দার প্রচুর ছবি ছাপা হয়েছে। সে সময়ের স্থানীয় সাংবাদিকরা কানু’দার ছবির উপর নির্ভরশীল ছিল। শহীদ সাংবাদিক আহসান উল্লাহ, সুরুজ চৌধুরী কানু’দার নিকট থেকে প্রয়োজনীয় ছবি নিতেন। ’৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৫৪ এর যুক্ত ফ্রন্টের নির্বাচন, আইয়ুব বিরোধী আন্দোলন, ’৬৯ এর গণঅভ্যূত্থান, ’৭০ এর নির্বাচন, ’৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধ প্রতিটি ইতিহাসের প্রত্যক্ষ সাক্ষী কানু’দা ইতিহাসের সব খ্যাতিমান ব্যক্তিত্বের ছবি তুলেছেন, দেখেছেন খুব কাছ থেকে। ’৫৪ সালে নির্বাচনী প্রচারে শেরে বাংলা একে ফজলুল হক জামালপুর এলে কানু’দা তার ছবি তুলেন।

ব্যক্তিগতভাবে কানু’দা পরিচিত ছিলেন মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান থেকে শুরু করে ইতিহাসের সব ডাকসাইটে নেতার সাথে।

কিছুদিন আগেও জামালপুরের কর্মরত সংবাদকর্মীরা পুরোপুরি কানু’দার উপর নির্ভরশীল ছিল। ফটোসাংবাদিক কানু’দা অনেকটা বিনে পয়সায় সাংবাদিকদের ছবি দিতেন। তাই সাংবাদিকরা আজীবন গভীর ঋণে দায়বদ্ধ থাকবেন কানু’দার নিকট।

এদিকে জামালপুরের প্রবীণ এই ফটোসাংবাদিকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক আজকের জামালপুর-এর সম্পাদক এম.এ জলিল ও সাধারণ সম্পাদক মুকুল রানাসহ অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

বুধবার রাত ১১টায় জামালপুর মহাশ্মশানঘাটে তার অন্ত্যোষ্টিক্রিয়ার পূর্বে জামালপুর প্রেসক্লাব প্রাঙ্গণে প্রবীন ফটোসাংবাদিক অজিত সোম কানুর মৃতদেহ নিয়ে আসা হলে উপস্থিত সাংবাদিকরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শেষবারের মতো তাকে এক নজর দেখে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

মৃত্যুকালে অজিত সোম কানু এক ছেলে ও ৬ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

(ঢাকাটাইমস/৯জানুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :