যবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের নতুন উদ্ভাবন

যবিপ্রবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:০২

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনারিং বিভাগের একদল শিক্ষার্থী মিলে অসুস্থ ও বৃদ্ধ ব্যক্তির চলাচল, প্রতিবন্ধী যারা দাঁড়াতে বা হাঁটতে পারেন না- তাদের জন্য তৈরি করেছেন সৌরচালিত অটোস্কুটার। এটি ঘণ্টায় প্রায় ২৫ কিলোমিটার বেগে চলতে সক্ষম।

যবিপ্রবির ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান, মিনহাজুল হক, রাহাত হোসেন ও মোহাম্মদ তারেক তিন মাস কাজ করে দেশে প্রথম এই অটোস্কুটারটি উদ্ভাবন করেন।

বাজারে প্রচলিত যেসব স্কুটার আছে সেগুলোকে পায়ে ঠেলে চালানো হয়। তাছাড়া এই অটোস্কুটারটির পুরো নিয়ন্ত্রণ স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালকের হাতে থাকবে। চালু ও বন্ধ করার জন্য রয়েছে মোটরসাইকেলের মতো চাবি। গিয়ার বক্স ব্যবহার করার মাধ্যমে চালক তার ইচ্ছে মতো গতি বাড়াতে ও কমাতে পারবেন। দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য পায়ে ব্রেক আর রাতে চলাচল জন্য হেডলাইট ও হর্ন লাগানো হয়েছে।

শিক্ষার্থী মেহেদী হাসান জানান, স্কুটারটি মূলত তৈরি করা হয়েছে হাঁটতে অসমর্থ এমন বৃদ্ধ ব্যক্তি, প্রতিবন্ধী যারা কোনো কিছু ধরে দাঁড়াতে পারে কিন্তু হাঁটতে পারে না তাদের জন্য কম ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা, যেমন: বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, পার্ক, নদীর পাড়ে এ স্কুটার নিয়ে চলাচল করা নিরাপদ। কোনো কারণে ল্যাপটপ অথবা মুঠোফোনের চার্জ শেষ হয়ে গেলেও এটির মাধ্যমে চার্জ করে নেয়া যাবে।

মেহেদী হাসান আরও জানান, স্কুটারটি আমরা নিজেদের গবেষণাকক্ষ ও স্থানীয় একটি স্টিল ওয়ার্কশপে তৈরি করেছি। আর খরচ হয়েছে মাত্র ১৫ হাজার টাকা। দেশে অনেক স্কুটার আছে যেগুলো পায়ে ঠেলে চালাতে হয়। কিন্তু এই স্কুটারটি চালক দাঁড়িয়ে থেকে নিজের ইচ্ছা ও সুবিধামতো নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। স্কুটারটিতে আরও কিছু নতুনত্ব আসছে, যা পুরোপুরি নিজেদের অর্থায়নে সম্ভব হচ্ছে না বলে জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/১৩ফেব্রুয়ারি/কেএম/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :