দম ফেলার ফুরসত নেই কামারদের

শেখ সাইফ, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ জুলাই ২০২২, ১৫:১৯ | প্রকাশিত : ০৬ জুলাই ২০২২, ১০:৪৪

কোরবানি ঈদের আর মাত্র ক’দিন বাকি। এখন মহাব্যস্ত কামারপাড়া। যেন দম ফেলার সময় নেই। রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ঢুকতেই দেখা মিলল আগুনে পুড়িয়ে পেটানো হচ্ছে দা, বঁটি, ডাসা, চাপাতি। কয়লার আগুনে লোহা গরম করে লাল টকটকে হলে হাতুড়ি পিটিয়ে পশু জবাই করার অস্ত্র তৈরি করতে ব্যস্ত কামারেরা।

চারদিকে কেবলই লোহা পেটানোর টুংটাং শব্দ। কেউ টানছে হাঁপর, কেউবা দিচ্ছে শান। কথা বলতেই জানা গেল, প্রায় এক মাস আগে থেকেই চলছে কামারদের ব্যস্ততা। অর্ডারের কাজও পেয়েছেন অনেক। আবার বিক্রির জন্যও তৈরি করছেন এসব অস্ত্রপাতি।

সরেজমিনে কারওয়ান বাজারসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার কামারের দোকানগুলো ঘুরে দেখা যায়, আগুনে পোড়ানো লাল নরম লোহায় হাতুড়ি পিটিয়ে দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করে দা, বঁটি, ডাসা, চাপাতি, চাকু কুড়ালসহ কোরবানির প্রয়োজনীয় অস্ত্রপাতি তৈরি করছেন কামারেরা।

কোরবানির জন্য অস্ত্রপাতি বানিয়ে পসরা সাজিয়ে বিক্রির আশায় বসে আছেন অনেকে। ক্রেতা এসে দর কষাকষি করে পছন্দের দা, বঁটি, চাপাতি, চাকু, কুড়ালসহ যন্ত্রপাতি কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। আবার অনেকে তাদের দা, চাকু, বঁটিসহ পুরাতন যন্ত্রপাতি মেরামত করে নিয়ে যাচ্ছেন। বছরের অন্য সময়ে দিনে দুই-তিনশ টাকা আয় হলেও এ সময়ে প্রতিদিন আয় হচ্ছে কয়েক হাজার টাকা।

নিরঞ্জন কামার জানান, মানভেদে নতুন চাপাতি ৭০০ থেকে ৯০০ টাকা, ছোট ছুরি ১৭০ থেকে ২৮০ টাকা, পশু জবাইয়ের ছুরি ১৮০০ থেকে ২০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া কুড়াল ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা, চাকু ৭০০-১২০০ টাকা ও বঁটি ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নিতাই কামার জানান, সারা বছর কাজ কম থাকলেও ঈদের আগে কাজের চাপ বেড়ে যায়। আর তাই রাত-দিন কঠোর পরিশ্রম করতে হয় তাদের। অনেক কষ্টের পরেও এ পেশাটি ধরে রেখেছেন। কারণ এটি তাদের পৈতৃক পেশা। কোরবানির সময়টাই আয়ের মৌসুম।

তবে আক্ষেপের কথাও জানান কামারেরা। লোহার দাম বেড়েছে, সেই সঙ্গে কয়লার দাম বেড়েছে অনেক। এজন্য আয় আশানুরূপ হচ্ছে না। এছাড়া করোনা ও বন্যা তো আছেই। এসব কারণেও কাজের চাহিদা অনেক কমেছে।

হরিপদ কামার বলেন, ‘আগে যেখানে লোহার কেজি ছিল ৬০ টাকা সেটি এখন ১২০ টাকা। কয়লার বস্তা আগে ছিল ৯০০ টাকা, এখন সেটি ১২০০ টাকা। এছাড়া চায়না কয়লা ১৮০০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।’

আগের তুলনার খরচ অনেক বেড়েছে বলে জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/৬জুলাই/এসকেএস/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ

দায়িত্বহীন বক্তব্য নয়, বাজারে গিয়ে প্রমাণ করুন: মন্ত্রীদের বিশিষ্টজনেরা

নেপথ্যে কী? ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জের মেয়রদের মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী মর্যাদার গেজেট আটকে আছে কেন?

চার দেয়ালে আটকা তিন পরিবার, মানবেতর জীবনযাপন

৬ মাসে মাদকের ২৫০ ডিলার গ্রেপ্তার

গণজাগরণ মঞ্চের সেই ডা. ইমরান কোথায় হারালেন?

জ্বালানি তেলের সংকট কতটা গভীর?

দ্বিগুণ বন্দি নিয়ে ধুঁকছে ফরিদপুর জেলা কারাগার, চিকিৎসায় সংকট

বিচারক না থাকায় থেমে আছে বিচারকাজ

শুধুই কি মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী মর্যাদা! না-কি অন্যান্য সুযোগ সুবিধাও বাড়বে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও নারায়ণগঞ্জের মেয়রের?

কত দিন ইউপিতে যান না সেলিম চেয়ারম্যান?

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :