শ্রীপুরে বেতন বৃদ্ধির দাবিতে শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

শ্রীপুর (গাজীপুর )প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ০১ মার্চ ২০২৪, ২০:৫৭

গাজীপুরের শ্রীপুরে বেতন বৃদ্ধি প্রতি মাসের তারিখের মধ্যে বেতন পরিশোধের দাবিতে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছে নোমান গ্রুপের তালহা স্পিনিং মিলের শ্রমিকরা।

সময় মহাসড়কে কাঠে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে তারা। এতে দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের তৈরি হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

গতকাল শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মুলাইদ গ্রামের এমসি বাজার এলাকায় নোমান গ্রুপের তালহা স্পিনিং মিলস্ লিমিটেডের শ্রমিকরা অবরোধ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন।

তালহা স্পিনিং মিলের আন্দোলনরত শ্রমিকরা বলেন, কারখানার শ্রমিকদের প্রতি মাসের ২০ তারিখে বেতন পরিশোধ করে কারখানা কর্তৃপক্ষ। আমরা বারবারই প্রতি মাসের তারিখের মধ্যে বেতন পরিশোধের দাবি জানালেও কারখানা কর্তৃপক্ষ তাতে কর্ণপাত করছে না। এছাড়াও গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেসিক বেতন ১৪ হাজার ৫০০ টাকা নির্ধারণ করলেও আমরা যারা টেক্সটাইল শ্রমিক হিসেবে আছি তাদের বেসিক বেতন হাজার টাকাই রয়ে গেছে। আমরা এসব বিষয় কারখানা কর্তৃপক্ষের নজরে আনলেও তারা আশ্বাস দিয়েই যাচ্ছেন। কিন্তু কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেন না।

শ্রমিক মেহেদী হাসান, অনুপম রাব্বি বলেন, আমরা এখানে রুম ভাড়া নিয়ে থাকি, পুরো মাসে মুদি দোকান থেকে বাকিতে দৈনন্দিন পণ্য কিনে বেতন পেয়ে বিল পরিশোধ করি। কারখানা থেকে প্রতি মাসের প্রথম সপ্তাহে বেতন না দিলে আমরা ঘর ভাড়া দোকান বাকি পরিশোধ করতে পারি না। নিয়ে দোকান মালিক বাড়ির মালিকদের কথা শুনতে হয়। আমাদের এই দুর্ভোগের কথা কারখানা কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার বললেও তারা তা সমাধানে কোনো উদ্যোগ নিচ্ছেন না। তাই বাধ্য হয়ে আমরা আন্দোলনে নেমেছি।

এদিকে ঘটনার পরপরই শ্রীপুর থানা পুলিশ শিল্প পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। পরে বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শ্রমিকরা মহাসড়ক ত্যাগ করেন।

শিল্প পুলিশের শ্রীপুর ক্যাম্পের ইনচার্জ মো. মিনহাজ জানান, শ্রমিকদের বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নেওয়া হলে বিকাল পৌনে ৩টার দিকে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। কারখানার ভেতরে শ্রমিকদের আন্দোলনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে। দ্রুতই শ্রমিকদের সমস্যা মিটে যাবে বলে জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/০১মার্চ/প্রতিনিধি/পিএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :