‘বাংলাদেশ এখন ত্রাণ দেয়’

রাবি প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৯:২৬

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান বলেছেন, বাংলাদেশ এমন একটা অবস্থা থেকে যাত্রা শুরু করেছে যার ভবিষ্যৎ কেউ দেখতে পারেনি। দেশের খাদ্য উৎপাদন চারগুণ বেড়েছে। এখন আমরা মানুষের মুখে অন্তত দুই বেলা ডাল-ভাত দিতে পারি। সম্প্রতি দশলাখ টন করে দুইটা দেশকে রিলিফ দেয়া হয়েছে।

শনিবার দুপুরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট আইবিএ’র পঞ্চম ডিগ্রি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

গ্রাজুয়েটদের উদ্দেশে ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে কৃষকদের দেশ প্রেমের কারণে। দেশপ্রেম ৯০% হতে পারে না। দেশ প্রেম হয় শতভাগ। পেটে ভাত না থাকলে এমবিএ, আইবিএ যে ডিগ্রি নেন না কেন কোন লাভ হবে না। দেশে যত বড় বড় নায়ক থাকুক না কেন। প্রধান নায়ক হচ্ছে কৃষক। এটাই বাস্তবতা’।

প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য ইউজিসি সদস্য প্রফেসর এম শাহ্ নওয়াজ আলী বলেন, আগামীর বাংলাদেশে ব্যবসার ক্ষেত্রে এ ইনস্টিটিউটি নেতৃত্ব দেবে। তরুণ সমাজকে নিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। উন্নত বাংলাদেশ গড়ার জন্য গ্রাজুয়েটদের জ্ঞান সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের পরিচালক প্রফেসর ড. এ কে শামসুদ্দোহা।

রাবি ভিসি ড. এম আব্দুস সোবহান গ্রাজুয়েটদের উদ্দেশে বলেন, আজকে যে ডিগ্রি নিলেন সেটি খুব একটা বড় বিষয় না। আপনি শিক্ষিত কিনা তা বুঝা যাবে কতটা পরিশিলিত, কতটা পরিমার্জিত, কতটা দেশপ্রেমিক তার উপর নির্ভর করে শিক্ষিত কিনা। আর যে জাতির মধ্যে দেশপ্রেম নেই সে জাতি কখনো এগিয়ে যেতে পারে না। সকলকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহবান জানান তিনি।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় কোষাধ্যক্ষ এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল- আরিফ। এ বছর ব্যবসা প্রশাসন ইনস্টিটিউট এর ৪৪০ জন শিক্ষার্থীকে গ্রাজুয়েট সনদপত্র প্রদান করা হয়। এদের মধ্যে থেকে ১২ জন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক দেওয়া হয়।

ঢাকাটাইমস/০৮ডিসেম্বর/প্রতিনিধি

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :