‘শেষ সম্মেলনে’ আবেগাপ্লুত মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:১৩

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অনেক সহযোদ্ধা চলে গেছেন পরপারে। নিজে এখনো আছেন বেশ প্রভাব-প্রতিপত্তির সঙ্গে। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য তিনি। তবে কালের পরিক্রমায় আর কতদিন দলে সক্রিয় থাকতে পারবেন সেই ভাবনায় পেয়ে বসা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উদ্বোধনকালে বেশ আবেগাপ্লুত হয়ে পড়লেন।

বললেন, ‘আজকে আমি আবেগের মধ্যে আছি। আমি আবার এমন কোনো সম্মেলন পাবো কি না জানি না।’

শনিবার লালদিঘি ময়দানে সম্মেলন উদ্বোধন ঘোষণাকালে প্রবীণ এই নেতা বলেন, ‘এটি হয়তো আমার শেষ সম্মেলন হতে পারে। আমার সঙ্গে মঞ্চে যারা থাকতো সেই আক্তারুজ্জামান বাবু, আতাউর রহমান খান কায়সার, এবি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী আজ আমার পাশে নেই।’

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘কেন্দ্রীয় নেতাদের বলব, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ প্রতিটি জেলায় সুসংগঠিত সংগঠন, প্রতিটি উপজেলায় আমরা সম্মেলন করেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেসব কর্মসূচির কথা বলছেন, আমরা সেসব কর্মসূচি অক্ষরে অক্ষরে পালন করে যাচ্ছি।’

মোশাররফ বলেন, ‘উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের একটি ঐতিহ্য আছে, ১৯৮০ সালে স্বৈরাচারী জিয়ার বিরুদ্ধে যখন আমরা মিছিল করছিলাম নিউমার্কেট মোড়ে তখন আমাদের ওপর হামলা হয়, আমার পায়ের রগ কেটে দেয়া হয়। আমি তিন মাস পঙ্গুত্বের সঙ্গে লড়াই করেছি। ১৯৯২ সালে ফটিকছড়ি গিয়েছিলাম ছাত্রলীগের সম্মেলনে, সেখানে শিবির হামলা চালিয়েছিল। সেখানে আমার চোখের সামনে আমাদের কর্মীকে গুলি করে হত্যা করে, আমাকে লাঞ্ছিত করা হয়।’

ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বলেন, ‘আমি চাই নেতারা আমাদের একটি সুন্দর কমিটি উপহার দেবেন। আমাদের নেতারা এমন কমিটি উপহার দেবেন, যারা চাঁদাবাজি করবে না। আমরা এমন নেতা চাই না যারা চাঁদাবাজি করবে।’

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই নেতা বলেন, ‘হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ঘোষণা করেছিলেন। আমরা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলাম। পবিত্র এই মাসেই আমাদের সম্মেলন হচ্ছে।’

ভারাক্রান্ত হৃদয়ে তিনি বলেন, ‘আমি অনেককে হারিয়েছি, আতাউর রহমান খান কায়সারকে হারিয়েছি, এবি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে হারিয়েছি, মান্নান ভাইকে হারিয়েছি, অনেককে হারিয়েছি। আমি আবার এমন কোনো সম্মেলন পাবো কি না জানি না। আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি আজকের সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করছি।’

সম্মেলনে উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্য আবদুল মতিন খসরু, যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, কেন্দ্রীয় উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও চট্টগ্রামের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

(ঢাকাটাইমস/০৭ডিসেম্বর/বিইউ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :