ফরিদপুরে কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা, মূল অভিযুক্ত গুলিতে নিহত

ফরিদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫২

ফরিদপুরের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরী ফাতেমাকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় জড়িত মূল অভিযুক্ত ইয়াসিন মোল্লা (২২)  পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন তিন পুলিশ সদস্য।

রবিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে শহরের রথখোলা লঞ্চঘাট জোড়া ব্রিজের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ইয়াসিন মোল্লা শহরের ওয়্যারলেস পাড়ার মনি মোল্লার ছেলে। তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফরিদপুর কোতয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বেলাল হোসাইন জানায়, রাজেন্দ্র কলেজের খেলার মাঠের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে আসামির ছবি সংগ্রহ করে ইয়াছিনকে চিহ্নিত করা হয়। এরপর স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে গতরাতে আটক করা হয়। পরে তাকে নিয়ে অভিযানে গেলে আসামির সহযোগীদের সঙ্গে পুলিশের পাল্টাপাল্টি গুলিবিনিময় হয়। এ সময় আসামি ইয়াছিন নিহত হয়। আহত হয় তিন পুলিশ সদস্য।

ইয়াসিনকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১২ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিবন্ধী কিশোরী ফাতেমাকে রাজেন্দ্র কলেজের মেলার মাঠ থেকে তুলে নিয়ে যায় ইয়াছিন নামে ওই ধর্ষক। পরদিন পাশের টেলিগ্রাম অফিসের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনার পর ফাতেমা হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে নানা কর্মসূচি পালিত হয় শহরে।

ঢাকাটাইমস/১৬ডিসেম্বর/প্রতিনিধি/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :