চন্দ্রিমা উদ্যান ধ্বংস করে জিয়ার মাজার বানানো হয়েছে: দেলোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ জুন ২০২১, ২২:৩৮

রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যান ধ্বংস করে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজার বানানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, সেখানে জিয়ার লাশ আছে কি না প্রশ্ন সাপেক্ষ!

বৃহস্পতিবার স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (কালিমন্দির গেট সংলগ্ন) বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনের সময় এসব কথা বলেন তিনি।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানটি তৈরি করেছিলেন। তিনি ১৯৭২ সালের ১৬ জুলাই নিজ হাতে নারিকেল গাছের চারা রোপণ করার মধ্য দিয়ে এই উদ্যানের কার্যক্রম শুরু করেছিলেন। যার হাত ধরে এই উদ্যানের সৃষ্টি, সেই বঙ্গবন্ধু এবং স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরার কাজ চলমান। সেটি বাস্তবায়ন করার জন্য কয়েকটি গাছ কাটা হয়েছিল। আমরাও চাই না, শেখ হাসিনাও চান না কোনো গাছ কাটা হোক।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, যে পরিমাণ গাছ কাটা হয়েছিল, তারচেয়েও বেশি গাছ আমরা রোপন করে দেবো। তারপরও সমালোচনা হয়েছে। যারা সমালোচক তারা কখনো বৃক্ষরোপণ করতে আসেনি আমরা শুধু এই উদ্যানে নয় শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে বৃক্ষরোপণ করে চলেছি।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, এই উদ্যানে দামী বৃক্ষ কর্তন করে জিয়ার নামে শিশু পার্ক করা হয়েছে তখন পরিবেশ আন্দোলন ও ছিল না প্রতিবাদও ছিল না। ধানমন্ডিতে কৃষ্ণ চূড়ায় সু শোভিত ছিল। গাছের ফাঁক দিয়ে গুলি করতে পারে এই বুদ্ধি যখন দিয়েছে তখন জিয়া সারাদেশে গাছ কর্তন করেছে।তখন পরিবেশ আন্দোলনের নামে কেউ কথা বলেনি।মুজিব শতবর্ষে আমরা ৩ কোটি গাছের চারা রোপণ করবো। গতবছর আমরা এক কোটি গাছের চারা রোপণ করেছি।

বজ্রপাতে মানুষের মৃত্যু প্রতিরোধে পরিবেশ বিজ্ঞানীদের মতে তালগাছ রোপন করার আহবান জানা তিনি।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা প্রাকৃতিক দূর্যোগ প্রবণ ৪৪ টি দেশের প্রধান হিসাবে কাজ করছেন। জলবায়ু সম্মেলনে তিনি বিশ্ববাসীর জন্য বিশ্বের তাপমাত্রা ১ দশমিক ৫ এর মধ্যে রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন। তার নির্দেশে সারাদেশে বৃক্ষরোপন উৎসবে পরিণত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ ও সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকএকেএম আফজালুর রহমান বাবু।

ঢাকাটাইমস/১৭জুন/টিএ/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :