বাংলাদেশে কাতারের বিনিয়োগ সম্ভাবনা দেখছেন ব্যবসায়ীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০০:০১

পারস্য উপসাগরের ছোট্ট একটি দেশ কাতার। জনসংখ্যার বিচারের স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশের তুলনায় ভোক্তা বাজার খুবই ছোট। তবে সৌদি আরবের পূর্ব উপকূলের ছোট এই উপদ্বীপটি অর্থবিত্তে সমৃদ্ধ। মাথাপিছু আয়ের হিসাবে বিশ্বের সব থেকে ধনী দেশগুলোর একটি।

দুই দিনের সফরে সোমবার উপসাগরীয় এই দেশটির আমির এসেছেন ঢাকায়। তার এই সফরে বাংলাদেশের সঙ্গে দেশটির বেশ কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে।

কূটনৈতিক সম্পর্ক এগিয়ে গেলে বাণিজ্যিক সম্ভাবনা সব সময় বাড়ে। কিন্তু কাতারের ভোক্তা বাজার ক্ষুদ্র হওয়ায় বাংলাদেশ-কাতারের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্প্রসারণের সম্ভাবনা কম। তবে বাণিজ্যিক সম্ভাবনা কম থাকলেও বাংলাদেশে কাতারের বিনিয়োগ আর্কষণের বিপুল সম্ভাবনা দেখছেন দেশের ব্যবসায়ীরা।

সোমবার কাতারের আমিরকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনবাংলাদেশ ও কাতারের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য মূলত তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি), সার বা পেট্রোকেমিক্যাল পণ্যের উপর নির্ভরশীল। এই পণ্যগুলো বাংলাদেশ কাতার থেকে আমদানি করে থাকে। ২০২২-২৩ অর্থবছরে বাংলাদেশের রপ্তানির পরিমাণ ছিলো প্রায় ৩২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং আমদানি করা হয় ২৩৬৬ মিলিয়ন ডলারের পণ্য।

কাতারের ভোক্তা বাজারের আকার ক্ষুদ্র হওয়ায় সেখানে ভোগ্য পণ্য রপ্তানির সুযোগও কম। ফলে বাংলাদেশ তাদের জন্য একটি আকর্ষণীয় বিনিয়োগ হতে পারে।

বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা বলেন, কাতারের জাতীয় অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি নির্ভর করে মূলত দেশের বাইরে তাদের যে বিনিয়োগ রয়েছে তার দক্ষতার ওপর।

কীভাবে কাতারের বিনিয়োগ বাংলাদেশে আনা যায়— সেদিকে অধিক গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন বলে মনে করেন তারা।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ রবিবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কাতারের আমিরের এ সফরে দুই দেশের মধ্যে ১১ চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে। এর মধ্যে দ্বৈতকর পরিহার, বিনিয়োগ উন্নয়ন ও সুরক্ষা এবং যৌথ ব্যবসা পরিষদ গঠনসংক্রান্ত চুক্তি রয়েছে।

এসব চুক্তি বাংলাদেশের সঙ্গে কাতারের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়াতে সহায়ক হবে বলে মনে করেন দেশের ব্যবসায়ীরা।

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি আশরাফ আহমেদ বলেন, ‘কাতার থেকে আমরা মূলত জ্বালানি, সার বা পেট্রোকেমিক্যাল পণ্য আমদানি করি। সেই তুলনায় রপ্তানির পরিমাণ খুবই নগন্য। কাতারের ভোক্তা বাজার ছোট। সুতরাং আমরা যেসব ভোগ্যপণ্য তৈরি করি, সেগুলো সেখানে রপ্তানির সুযোগও কম। তবে কনস্ট্রাকশনসহ আরও বেশ কিছু সেবা খাতে আমাদের অংশগ্রহণ বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে— যার মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য সম্প্রসারণ করা যেতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘কাতারে বাংলাদেশের রপ্তানি বাড়ানোর সুযোগ কম থাকলেও সেদেশের বিনিয়োগ নিয়ে আসার সম্ভাবনা অনেক। সেখানকার উদ্যোক্তারা বিদেশে বিনিয়োগ করতে চাই। জ্বালানি ও ব্যাংকিং খাতে তারা বিনিয়োগ করতে পারে।’

‘আমাদের যে বিশেষায়িত শিল্পাঞ্চল রয়েছে সেখানে কাতারের বিনিয়োগ আনার বিষয়টি গুরুত্ব দেওয়া উচিত’ যোগ করেন ডিসিসিআই সভাপতি আশরাফ আহমেদ।

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) পরিচালক এবং শাসা ডেনিম এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শামস মাহমুদ মনে করেন, কাতার যদি বাংলাদেশী পোশাক খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য সেদেশে ব্যবসা করার প্রক্রিয়া সহজ করে, তবে কাতারে বাংলাদেশের পোশাক রপ্তানি বৃদ্ধি পাবে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশী উদ্যোক্তারা ওভারসিজ অফিস স্থাপনের মাধ্যমে সেখানে সহজে পোশাক রপ্তানি করছে। কাতারে একইরকম সুবিধা পেলে, সেখানে বাংলাদেশের পোশাক রপ্তানি বাড়বে।

শামস মাহমুদ বলেন, ‘কাতার এখন আইটি ডেভলপারদের ব্যবসায়িক সুযোগ দিচ্ছে। আমাদের উচিত সেই সুযোগ কাজে লাগানোর।’

তবে আশরাফ আহমেদের মতো তিনিও বাণিজ্যের চেয়ে বাংলাদেশে কাতারের বিনিয়োগ টানার অনেক সুযোগ রয়েছে বলে মনে করেন।

শামস মাহমুদ বলেন, ‘সিঙ্গাপুর বাংলাদেশে লজিস্টিকখাতে বিনিয়োগ করেছে। এই খাতে আরও বিনিয়োগ প্রয়োজন। কাতার বিনিয়োগ নিয়ে এখাতে এগিয়ে আসতে পারে। এছাড়া তারা এখানে কোল্ড চেইনখাতে বিনিয়োগ, বিশেষায়িত শিল্পাঞ্চল ডেভলপ ও ঢাকায় কাতার এয়ারলাইন্সের কার্গো হাব করতে পারে।’

এই বিষয়গুলো উচ্চ পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক আালোচনায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব পাবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তথ্যসূত্র: বাসস

(ঢাকাটাইমস/২২এপ্রিল/এসআইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

আগেও বাংলাদেশে যাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র

ভোটার উপস্থিতি কম: সিইসি বললেন ‘রাজনৈতিক সংকট সমাধান হওয়া উচিত’

উপজেলা নির্বাচন: বিচ্ছিন্ন ঘটনায় শেষ হলো ভোটগ্রহণ, চলছে গণনা

নিষেধাজ্ঞার পর যা বললেন সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদ

সাবেক সেনাপ্রধানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা, যা বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা সংকটজনক: আর্টিকেল নাইনটিন

রাইসির মৃত্যু: বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় শোক পালন করবে বাংলাদেশ

নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে জানি না, শুধু শুনেছি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

উপজেলা নির্বাচন: চার ঘণ্টায় ভোট পড়েছে ১৭ শতাংশ

দুই দিনের সফরে ঢাকায় অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী 

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :